সংবাদ সম্মেলনে কাঁদলেন রিজভী

এ রায় গণবিরোধী, ন্যায়বিচার হয়নি

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসিচব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়কে গণবিরোধী বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসিচব রুহুল কবির রিজভী।

এ রায়ে ন্যায়বিচার হয়নি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার আদালতের রায় ঘোষণার পর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ মন্তব্য করেন।

সংবাদ সম্মেলনের একপর্যায়ে কেঁদে ফেলেন রিজভী। এ সময় তিনি বলেন, স্বামী-সন্তানহারা এ মানুষটিকে (খালেদা জিয়া) প্রতিহিংসার বশেই এ রায় দেয়া হয়েছে।

রিজভী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া থাকলে দেশের আন্দোলন চলমান থাকবে। আন্দোলনকে নিশ্চিহ্ন করতে এ রায় দেয়া হয়েছে। ‘এ রায় প্রতিহিংসাপরায়ণ রায়। প্রতিপক্ষকে নিশ্চিহ্ন করার রায়। একজন ব্যক্তিকে খুশি করতেই এ রায় দেয়া হয়েছে। চাকরি রক্ষা করতেই এ রায় দেয়া হয়েছে’, বলেন তিনি।

‘এ রায়ের প্রতি ধিক্কার জানাই, প্রতিবাদ জানাই, ঘৃণা জানাই,’ বলেন রিজভী।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া তারেক রহমানসহ অন্য পাঁচ আসামির প্রত্যেককে ১০ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই কোটি টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসার মাঠে স্থাপিত ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন।

২০০৮ সালের ৩ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকের তৎকালীন উপসহকারী পরিচালক হারুন অর রশীদ ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে রাজধানীর রমনা থানায় মামলাটি করেন।

এতে খালেদা জিয়া, তারেক রহমান, মমিনুর রহমান, কাজী সালিমুল হক কামাল, শরফুদ্দিন আহমেদ, সাঈদ আহমেদ ও গিয়াস উদ্দিনকে আসামি করা হয়। তদন্তে সাঈদ আহমেদ ও গিয়াস উদ্দিনের সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় চার্জশিট থেকে তাদের নাম বাদ দেয়া হয়। তদন্তে নতুন করে আসামি হিসেবে যুক্ত হন ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী।

ঘটনাপ্রবাহ : জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.