‘সুপার ধনী’ নামে দেশে একটি সংখ্যাল্প দল সৃষ্টি হয়েছে: মেনন

  সংসদ রিপোর্টার ১৯ জুন ২০১৯, ২০:৪৫ | অনলাইন সংস্করণ

রাশেদ খান মেনন
রাশেদ খান মেনন। ফাইল ছবি

‘সুপার ধনী’ নামে দেশে একটি সংখ্যাল্প দল সৃষ্টি হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম প্রধান শরীক ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

বুধবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে রাশেদ খান মেনন এ মন্তব্য করেছেন।

রাশেদ খান মেনন বলেন, রাষ্ট্রযন্ত্রের বিভিন্ন অংশ যদি নির্বাচনের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে, তাহলে রাজনৈতিক দল কেবল নির্বাচন নয়, রাষ্ট্র পরিচালনায়ও প্রাসঙ্গিকতা হারিয়ে ফেলবে। কারণ রোগ এখন উপজেলা নির্বাচন পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে।

তিনি সরকারের অর্থনৈতিক ব্যবস্থার তীব্র সমালোচনা করতে গিয়ে বলেন, ব্যাংক খাতে লুটপাট, নৈরাজ্য ও বিশৃংখলা কারও কাম্য নয়। ঋণখেলাপির দায়ে ব্যাংকগুলো ন্যুব্জ। চলছে তারল্য সংকট।

‘করের টাকা দিয়ে ব্যাংকের ঘাটতি মূলধন পূরণ করার জন্য এবারেও বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের স্বাধীন ভূমিকা দূরে থাক, ব্যাংকগুলোকে কার্যকর নজরদারি করতেও অক্ষমতার পরিচয় দিচ্ছে।’

জোটগত বিষয়ে রাশেদ খান মেনন বলেন, প্রধানমন্ত্রী চৌদ্দ দলের শরিকদের নিজ পায়ে দাঁড়াতে বলেছেন। কিন্তু যদি গণতান্ত্রিক স্পেস না থাকে তাহলে কেউ সংগঠন নিয়ে, আন্দোলন নিয়ে, ভোট নিয়ে এগুতে পারে না।

রাশেদ খান মেনন বলেন, জোটে নির্বাচন করলেও আওয়ামী লীগ এই সরকারকে আওয়ামী লীগ সরকার বলছে। এর জন্য দুঃখবোধ নাই। কোন প্রত্যাশাও নাই, যে ইঙ্গিত মাঝে মাঝেই করা হয়।

রাশেদ খান মেনন বলেন, সম্পদ পুঞ্জিভূত হয়েছে কিছু হাতে। দেশে একটি সংখ্যাল্পদল সৃষ্টি হয়েছে যারা ‘সুপার ধনী’, এমনকি চীনের ধনীর তুলনায় সংখ্যায় বেশি। এদের মধ্যে ১০ শতাংশ ধনী মোট সম্পদের ৯০ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।

তিনি আরও বলেন, এরা মূলতঃ ‘রেন্ট সিকার’। ক্ষমতার চারপাশে বলয় গড়ে তুলে তারা বিভিন্ন ধরনের লুণ্ঠন, দখল-বেদখল, জোর-জবরদস্তির মারপ্যাচের মাধ্যমে। দেশের সব ব্যাংক, বীমা, আবাসন, এমনকি প্রবাসে লোক পাঠানো এসবই এদের হাতে।

ঘটনাপ্রবাহ : বাজেট ২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×