ড. কামালকে নিয়ে শিষ্টাচারবিরোধী মিথ্যাচার করা হচ্ছে: গণফোরাম

প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৯, ১৮:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

মোহাম্মদ নাসিম-ড. কামাল হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে নিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম শিষ্টাচারবিরোধী মিথ্যাচার করেছেন বলে দাবি করেছে গণফোরাম। 

বুধবার এক বিবৃতির মাধ্যমে মোহাম্মদ নাসিমের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে এই দাবি করা হয়।  

গণফোরামের বিবৃতিতে নাসিমের এ বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান দলের নির্বাহী সভাপতি আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক রেজা কিবরিয়া।

তারা বলেন, গতকাল সংসদে আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম, গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা ড. কামাল হোসেন সম্পর্কে যে কুরুচিপূর্ণ উদ্দেশ্যমূলক শিষ্টাচারবিরোধী মিথ্যাচার করেছেন, আমরা তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। 

‘ভোটারবিহীন ও আগের রাতে ব্যালটবাক্স ভর্তি করা জনগণ কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত বর্তমান পার্লামেন্টের সরকার দলীয় নেতা মোহাম্মদ নাসিমের কাছে এর থেকে বেশি ভদ্রতা আশা করা যায় না।’ 

গণেফারাম দাবি করে জনগণের অংশগ্রহণে গড়ে ওঠা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শক্তিতে ভীত ও গণবিচ্ছিন্ন বর্তমান সরকার ও সংসদ মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ও অনৈক্য সৃষ্টি করার লক্ষ্যে মোহাম্মদ নাসিম এই মিথ্যাচার করেছে। 

‘সরকার হীন রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার কুমতলবে এ ধরনের প্রলাপ বকছে। জাতীয় ঐক্যকে আরো শক্তিশালী ও সুদৃঢ় করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে সফল করার মধ্য দিয়ে এ ধরনের ধৃষ্টতার জবাব দিতে হবে।’ 

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে ড. কামাল হোসেন আওয়ামী লীগের পক্ষে কাজ করেছেন। 

তিনি বলেছেন, বিএনপি বারবার ভুল করেছে। ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিএনপি লোক ভাড়া করল। কাকে করলেন? আওয়ামী লীগের পরিত্যক্ত নেতা ড. কামাল হোসেনকে। ড. কামাল হোসেনের মত একজন ব্যর্থ চক্রান্তকারী মানুষকে ভাড়া করে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সামনে দাঁড় করাল।

‘জিততে পারবেন? জিততে পারবেন না। তিনি (ড. কামাল হোসেন) কি করলেন? আওয়ামী লীগের পক্ষে কাজ করে মাঠ খালি করে দিলেন। আমরা ফাঁকা মাঠে গোল দিলাম। এই হচ্ছে ভাড়াটিয়া নেতার উপহার। ওরা ভাড়া করে ওদের জন্য, কাজ করল আমাদের জন্য।’

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নির্বাচনে ড. কামাল হোসেন সমস্ত মাঠ খালি করে দিলেন। আমার নিজের নির্বাচনী এলাকায় প্রতিদ্বন্দ্বী খুঁজে পাইনা। একজন গায়িকা দিয়েছিলেন, সেই গায়িকাকেও খুঁজে পাওয়া গেল না, গানও পাওয়া গেল না।

‘ফাঁকা মাঠা গোল দিয়েছি। খেলা যদি ফাঁকা মাঠে হয়, কি করব? দুই দিকে গোল পোস্ট থাকে। আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা থাকেন ফরওয়ার্ডে, আরেক দল মাঝপথ থেকে পালিয়ে গেল। তখন আমরা গোল তো দেবোই, বারবার গোল দেবো।’