দেশে গণতন্ত্রের কবর হয়েছে: ফখরুল

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
শহীদ মিনারে ফুল দিচ্ছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ আরও অনেকে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের কবর রচনা করা হয়েছে। দেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও ধ্বংস করা হয়েছে। মানুষের অধিকার ও ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়া হচ্ছে। মানুষের জীবনের কোনো নিরাপত্তা নেই।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বুধবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি একথা বলেন।

প্রতি বছর দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায় বিএনপি। দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়া কারাগারে থাকায় এবার তা না করে সকালে মহাসচিবের নেতৃত্বে প্রভাতফেরী করে শহীদ মিনারে গিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালো দলটি।

সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দলের নেতারা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদীতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় তারা কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

এর আগে সকাল সাড়ে ছয়টার পর থেকে বিএনপির নেতা-কর্মীরা রাজধানীর নিউমার্কেটের বিপরীতে বলাকা সিনেমা হলের সামনে জড়ো হতে থাকেন। সকাল আটটার দিকে প্রথমে মিছিল নিয়ে আজিমপুর কবরস্থানে ভাষাশহীদ শফিউর রহমান ও আবুল বরকতের কবর জিয়ারত করেন দলটির নেতা-কর্মীরা। এরপর মহাসচিবের নেতৃত্বে কয়েক হাজার নেতা-কর্মী প্রভাত ফেরী করে শহীদ মিনারে যান।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘এই দিনে বিএনপি ও দলের চেয়ারপারসনের পক্ষ থেকে ভাষাশহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছি। আজকে এমন এক সময় এ দিবস পালন করতে হচ্ছে, যখন দেশে কোন গণতন্ত্র নেই।’

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া চিরকাল গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন, লড়াই করেছেন। তাকে একটি মিথ্যা মামলায় কারাগারে দিন যাপন করতে হচ্ছে। অত্যন্ত দুঃখ, কষ্ট ও ভারাক্রান্ত হৃদয়ে আমরা দিনটি পালন করছি।’

একুশের গুরুত্ব উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, এই দিনে শুরু হয়েছিল স্বাধীনতা আন্দোলনের মূল ভিত্তি। সমগ্র জাতি গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছিল। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন স্বাধীনতাসংগ্রামের মূল ভিত্তি ছিল।

বাংলাদেশের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে গণতন্ত্র ও বিএনপি চেয়ারপারসনকে মুক্ত করার জন্য ঐক্যবদ্ধ গণ-আন্দোলন গড়ে তোলার কথা জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, যে সরকার জগদ্দল পাথরের মতো বসে আছে, তাদের সরিয়ে ও পরাজিত করার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান ইনাম আহমেদ চৌধুরী, বরকত উল্লাহ বুলু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, হাবিবুর রহমান হাবিব, আবদুস সালাম, অধ্যাপক সুকমল বড়ুয়া, সিরাজউদ্দিন আহমেদ, ফরহাদ হালিম ডোনার, কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সাহাদাত হোসেন জীবন, কামরুজ্জামান রতন, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, রাশেদা বেগম হীরা, মীর সরফত আলী সপু, অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, আবদুল বারী ড্যানী, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, ডা: রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, নেওয়াজ হলিমা আরলি, শহীদুল ইসলাম বাবুল, আবদুল আউয়াল খান, হারুনুর রশীদ, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, আমিরুজ্জামান শিমুল, তাবিথ আউয়াল, খন্দকার মারুফ হোসেন, রফিক শিকদার প্রমূখ।

এছাড়া ঢাকা মহানগর বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, শ্রমিক দল, মহিলা দলসহ দলের অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.