শোভন-রাব্বানীর গ্রেফতার চাইলেন আলাল

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

শোভন-রাব্বানীর জেল চাইলেন আলাল
মানববন্ধনে মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। ছবি: সংগৃহীত

চাঁদাবাজিতে জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে বরখাস্ত হওয়া রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও গোলাম রাব্বানীর গ্রেফতার দাবি করেছেন সাবেক ছাত্রনেতা ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদক কোটি টাকা আদায় করার জন্য যে নোংরামি করলো তারা বহিষ্কার কেন? তাদের কি আমরা জেলখানায় দেখতে পাবো না? তাদের যারা অবৈধ নির্বাচনের মাধ্যমে নষ্ট করলো... এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আখতারুজ্জামান...তাকে কি ঘাড় ধরে বের করে দেয়া হবে না? দুর্নীতিতে অভিযুক্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ছাত্রলীগের নেতাদের সঙ্গে ফুলের মালা নিয়ে মিছিল করেন, তার বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হবে না?

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সোমবার দুপুরে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে আলাল বলেন, আপনার পাশে এইচ টি ইমাম রয়েছেন। আপনার অবশ্যই মনে আছে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের কথা। আপনার পাশে মতিয়া চৌধুরী রয়েছেন, তিনি আপনার বাবার চামড়া দিয়ে ডুগডুগি বাজাতে চেয়েছিলেন, আপনার পাশে হাসানুল হক ইনু, রাশেদ খান মেননও রয়েছেন- তারাই আপনার ডুগডুগি বাজিয়ে ছেড়ে দেবে, বিএনপির কিছু করতে হবে না।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী আপনি আপনার নিজের স্বার্থে বেগম জিয়াকে মুক্ত করে দেন। বেগম খালেদা জিয়া আপনাকে সাহায্য করতে পারেন। তিনি যা অতীতে বিভিন্ন সময়ে আপনাকে করেছেন। সুতরাং নিজের স্বার্থে এবং গণতন্ত্রের স্বার্থে তার মুক্তির ব্যবস্থা করুন।'

বালিশ ও পর্দা কাণ্ড নিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সমালোচনা করে আলাল বলেন, ‘ওবায়দুল কাদের বলেন বালিশ ও পর্দা এগুলো নাকি ছিঁচকে চুরি। ভালো কথা এগুলো যদি ছিঁচকে হয় আপনারা তো বড় গলায় বলেছেন দেশ বানাবো সিঙ্গাপুর। দেশ বানাতে চেয়েছেন সিঙ্গাপুর ডিসির কারণে হয়ে গেছে জামালপুর। আপনারা দেশ বানাতে চেয়েছেন সিঙ্গাপুর, আপনাদের লাখ লাখ টাকার পাথর কয়লা চুরির কারণে এটি হয়েছে দিনাজপুর। দেশ বানাতে চেয়েছেন সিঙ্গাপুর, পর্দা চুরির কারণে হয়ে গেছে ফরিদপুর।

সংবাদ মাধ্যমের সমালোচনা করে যুবদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, 'বিভিন্ন পত্রিকায় দেখলাম শেখ হাসিনা নাকি কঠোর হচ্ছেন...আরে ভাই শেখ হাসিনা কঠোর ছিলেন নাই বা কবে? শেখ হাসিনার অবৈধ কঠোরতার কারণেই তো আজ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে বন্দি। তার প্রতিহিংসার কারণেই আজকে তারেক রহমান দেশছাড়া।’

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ-সভাপতি মিজানুর রহমানের (বীরপ্রতীক) সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাদেক খানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক জয়নুল আবেদীন, বিএনপির স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরীন সুলতানা, চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×