সরকার বেকায়দায় পড়ে শোভন-রাব্বানীকে অপসারণ করেছে: মওদুদ

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। ফাইল ছবি

নেতাদের দুর্নীতির কারণে সরকার বেকায়দায় পড়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে অপসারণ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ মন্তব্য করেন তিনি।  

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে বিএনপিপন্থী প্রকৌশলীদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (এইবি) এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

অ্যাসোসিয়েশনটির আহ্বায়ক প্রকৌশলী রিয়াজুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ও সিনিয়র সাংবাদিক শওকত মাহমুদসহ আরও অনেকে বক্তব্য দেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মওদুদ বলেন, আজ সরকারের মুখোশ খুলে গেছে।  সরকার এমন বেকায়দায় পড়েছে যে, বাধ্য হয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অপসারণ করতে হয়েছে।  কেন? টাকার জন্য, ঘুষের জন্য, তারা দুর্নীতি করেছে সে জন্য।  

এ সময় রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে সরকারের পররাষ্ট্রনীতির কড়া সমালোচনা করেন তিনি।  মওদুদ বলেন, সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে দেশ আজ সমস্যার সম্মুখীন।  নানা সংকটের মধ্যে একটি হল রোহিঙ্গা।  এই রোহিঙ্গা সংকট এ সরকারের সৃষ্টি।  এ জন্য সরকারই সম্পূর্ণভাবে দায়ী।  তাদের কূটনৈতিক ব্যর্থতার কারণে আজ ১১ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অবস্থান করছে।  এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাকেও তাদের দেশে ফেরত পাঠাতে পারেনি সরকার। 

বিএনপির সাবেক এ আইনমন্ত্রী বলেন, আজ এক বছর ৭ মাস তিনি (খালেদা জিয়া) জেলখানায়।  একটি বানোয়াট মামলায় তাকে সাজা দেয়া হয়েছে।  আইনিভাবে তাকে মুক্ত করার জন্য অনেক চেষ্টা করেছি।  এ ধরনের মামলায় তার জেলখানায় থাকার কথা নয়।  আইনি প্রক্রিয়ায় তার মুক্তি হবে না।  রাজপথে আন্দোলন করে তাকে মুক্ত করতে হবে।  তাই নতুন করে আন্দোলনের কর্মসূচি দিতে হবে।