ভারতের সঙ্গে চুক্তি ও সমঝোতা বাতিলের দাবি জমিয়তের

  যুগান্তর ডেস্ক ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৭:২৬:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

পল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে জমিয়তের সংবাদ সম্মেলন। ছবি: সংগৃহীত

গত ৫ অক্টোবর নয়াদিল্লীতে ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে সম্পাদিত সাতটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক বাতিলের দাবি জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী।

তিনি বলেন, এসব চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক দেশবিরোধী। এগুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে ভারতের সকল চাওয়া-পাওয়া পুরণ করা হয়েছে। এসব চুক্তি বাস্তবায়িত হলে দেশ বহুমুখী ক্ষতির সম্মুখীন হবে। সংবিধান পরিপন্থী ও দেশবিরোধী এসব চুক্তি দেশের জনগণ কখনোই মেনে নিবে না। অবিলম্বে এসব চুক্তি বাতিল করতে হবে।

একই সঙ্গে জমিয়ত মহাসচিব বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে বলেন, বুয়েটের মতো দেশসেরা প্রতিষ্ঠানে সংঘটিত এই নিষ্ঠুর হত্যা দেশের সর্বস্তরের মানুষের মনে গভীর আঘাত করেছে।

বৃস্পতিবার দুপুরে পল্টনস্থ দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহসভাপতি মাওলানা জহিরুল হক ভূঁইয়া, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব, যুগ্মমহাসচিব মাওলানা তাফাজ্জুল হক আজীজ, মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাওলানা নাজমুল হাসান, অর্থ সম্পাদক মুফতি জাকির হোসাইন কাসেমী, এনডিপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ক্বারী আবু তাহের, জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা জয়নুল আবেদীন, দফতর সম্পাদক মাওলানা আব্দুল গাফফার ছয়ঘরী, কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মুহিউদ্দীন মাসুম প্রমুখ।

জমিয়ত মহাসচিব বলেন, সরকারের তরফ থেকে বার বার বলা হচ্ছে, ‘ভারতকে মানবিক কারণে ফেনী নদীর পানি ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হয়েছে। তাহলে আমরাও তো একই ধরনের মানবিকতা ভারতের কাছ থেকে আশা করি। কিন্তু ভারত সেটা কখনো করেছে? গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে দৌড়ঝাপ ও দেন-দরবার করেও তিস্তার একফোঁটা পানি ভারতের কাছ থেকে আদায় করা গেছে?

তিনি বলেন, ভারতের সাথে সরকার কি কি চুক্তি করেছে, তা জানার অধিকার বাংলাদেশের জনগণের অবশ্যই রয়েছে। দেশের সংবিধান এই অধিকার দেশের জনগণকে দিয়েছে। আমরা ফেনী নদীর পানি তুলে নেওয়া, বন্দর ব্যবহার, ট্রানজিট, ভারতীয় রাডার স্থাপনসহ দেশবিরোধী এসব বাতিলের জোর দাবি জানাচ্ছি।

আল্লামা কাসেমী দেশের সব খতীব, ইমাম ও সর্বস্তরের মুসলমানদের প্রতি আগামী কাল শুক্রবার বাদ জুমা হত্যাকাণ্ডের শিকার বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের রূহের মাগফিরাত ও জান্নাতের জন্য বিশেষ দোয়া-মোনাজাত করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত