লেজুরবৃত্তি রাজনীতির কারণে ছাত্ররা শিক্ষকদের সম্মান দেয় না: হানিফ

  শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ১৩ অক্টোবর ২০১৯, ১৯:৩০ | অনলাইন সংস্করণ

শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ
শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ

শিক্ষক রাজনীতি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, শিক্ষকরা কেন রাজনীতি করবেন। শিক্ষকদের লেজুরবৃত্তি রাজনীতির কারণে ছাত্ররা আজ তাদের সম্মান দেয় না। ভিসি, প্রো-ভিসি হওয়ার জন্য শিক্ষকরা লেজুরবৃত্তির রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েছেন।

রোববার দুপুরে শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এ সব কথা বলেন।

মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়াসহ বিএনপি নেতারা তাদের কৃতকর্মের জন্য জেল খাটছেন। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা, জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতি, দুর্নীতি ও অপ-রাজনীতির জন্য তারা এখন তাদের পাপের প্রায়াশ্চিত্য করছেন।

তিনি বলেন, সে সময় কিবরিয়া, আহসান উল্লাহ মাস্টারসহ ২৬ হাজার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছিল। আজকে মির্জা ফখরুল ইসলাম কান্না-কাটি করেন, তখন তার এই কান্না কোথায় ছিল?

বিএনপি নেত্রীকে উদ্দেশ করে হানিফ বলেন, এই কারাবরণই শেষ হবে না, খালেদা জিয়ার সামনে আরও কঠোর দিন অপেক্ষা করছে। বাকি জীবন তাকে কারাগারেই কাটাতে হবে।

বিএনপির অতীত দুর্নীতির ইতিহাস ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, বিএনপি আমলে ভারতের বিখ্যাত টাটা শিল্পগোষ্ঠী ও সামসং বড় বড় বিনিয়োগ করতে বাংলাদেশে এসেছিল। চুক্তির সম্পাদনের আগে রতন টাটার কাছে তারেক রহমানের পক্ষে টেন পার্সেন্ট কমিশন চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু রতন টাটা সে প্রস্তার ফিরিয়ে দিয়ে দিল্লি ও সামসং ভিয়েতনামে বিনিয়োগ সরিয়ে নেয়।

আবরার হত্যা প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, আরবার হত্যার ঘটনাকে ইস্যু করে বিএনপি এখন সরকার পতনের স্বপ্ন দেখছেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ কচু পাতার পানি নয় যে, ধাক্কা দিলে পড়ে যাবে। আওয়ামী লীগের শেকর মাটির অনেক গভীরে প্রথিত, আওয়ামী লীগ অনেক শক্তিশালী সংগঠন।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে আবরার হত্যার সঙ্গে জড়িত ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দ্রুত বিচার আইনে তাদের বিচার করে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।

শ্রীমঙ্গল উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. আছকির মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এমএ মান্নানের সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (সিলেট বিভাগীয় দায়িত্বে) আহমদ হোসেন, বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দীন কামরান, ড. মো. আবদুস শহীদ এমপি, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান।

সম্মেলনে বিশেষ বক্তা ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান।

এর আগে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা আহমদ হোসেন ও মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমদ এমপি পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×