খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ এমপি হারুনের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১০:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ এমপি হারুনের

গুরুতর অসুস্থ বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার স্বার্থে মুক্তির ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব ও সংসদ সদস্য হারুন অর রশীদ।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দেয়া বক্তব্যে হারুন অর রশীদ এ অনুরোধ জানান। এ সময় সংসদ নেতা শেখ হাসিনা অধিবেশন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন।

কারাবন্দি খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে হারুন অর রশীদ বলেন, আমরা দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে দেখে এসেছি। তার শারীরিক অবস্থা সত্যিকার অর্থেই খারাপ। তিনি নড়াচড়া করতে পারেন না। পঙ্গু হয়ে যাওয়ার পথে। গণতন্ত্রসহ বহু আন্দোলন–সংগ্রামে খালেদা জিয়ার ভূমিকা রয়েছে। তার চিকিৎসার কথা বিবেচনায় নিয়ে সরকার প্রধানের কাছে মুক্তি দাবি করছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে এমপি হারুন বলেন, ‘মাননীয় সংসদ নেতাকে বিনীতভাবে অনুরোধ করব, অন্ততপক্ষে চিকিৎসার স্বার্থে ওনাকে (খালেদা জিয়া) জামিনে মুক্তি দিন। ওনার সুচিকিৎসার জন্য আপনি ব্যবস্থা নিন। ওনার যে বয়স, উনি চলাফেরা করতে পারেন না। সংসদ নেতার দৃষ্টিতে বিষয়টি নিয়ে এসে এ বিষয় বিবেচনার জন্য অনুরোধ করব।’

সরকারের অনুমতি নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার খোঁজ-খবর নেয়ার জন্য হাসপাতালে গিয়েছিলেন উল্লেখ করে বিএনপির এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) এদেশের আন্দোলন-সংগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। সত্যিকার অর্থেই উনার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ।’

দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছর দণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাবন্দি বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া। শারীরিক অসুস্থতার কারণে ১ এপ্রিল থেকে কারা হেফাজতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি চিকিৎসাধীন। তবে সেখানে তার সুষ্ঠু চিকিৎসা হচ্ছে না বলে অভিযোগ বিএনপি নেতাদের।

উল্লেখ্য, ১ অক্টোবর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দেখা করেন এমপি হারুনের নেতৃত্বে বিএনপির তিন সংসদ সদস্য। সেখান থেকে বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় খালেদা জিয়ার অসুস্থতার কথা বর্ণনায় কান্নায় ভেঙে পড়েন হারুন অর রশিদ এমপি। বলেন, নেত্রী ভীষণ অসুস্থ। তার অবস্থার দিন দিন অবনতি হচ্ছে। তিনি নিজ হাতে খেতেও পারেন না। জরুরিভিত্তিতে তার উন্নত চিকিৎসা দরকার।

হারুন অর রশীদ বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা খুব বেদনাদায়ক, হাত ফুলে আছে, ব্যথা। খাওয়াটাও নিজের হাতে খেতে পারেন না। সঙ্গে যিনি আছেন, তিনি খাইয়ে দেন। তার পোশাকও আরেকজনকে পরিয়ে দিতে হয়। এ অবস্থায় তাকে জেলে বন্দি রাখাটা অত্যন্ত অমানবিক।

জামিনে মুক্তি না দিয়ে সরকার খালেদা জিযার প্রতি জুলুম করছে বলেও অভিযোগ করেন হারুন অর রশীদ। তিনি জানান, জামিনে মুক্তি পেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাবেন তিনি।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে হারুন অর রশীদ বলেন, খালেদা জিয়া চরম জুলুমের শিকার। তিনি কী কষ্টে আছেন তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। এই জুলুম থেকে যেন আল্লাহপাক তাকে মুক্ত করে এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

হারুন অর রশিদ বলেন, দেশবাসীর কাছে উনি দোয়া চেয়েছেন। বিদেশে চিকিৎসা দরকার। উন্নত বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দরকার। সুযোগ দিলে তো অবশ্যই বিদেশে যাবেন। আজকে জামিন পেলে কালই বিদেশে যাবেন।

প্যারোলের আবেদন করা হবে কিনা এমন প্রশ্নে হারুন বলেন, প্যারোলের বিষয় আসছে কেন? উনি তো জামিন পাওয়ারই যোগ্য।

সরকারের তরফ থেকে প্যারোলের কোনো প্রস্তাবনা আছে কিনা প্রশ্ন করা হলে হারুন অর রশীদ বলেন, ‘প্যারোলের বিষয়ে কোনো প্রস্তাবনা নেই। এ বিষয়টি আসবে কেন? তিনি তো জামিন পাওয়ার যোগ্য।’

ওবায়দুল কাদেরকে বিদেশে পাঠিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে, এমন উদাহরণ টেনে বিএনপির এ এমপি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে কেন এই চিকিৎসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে? এটি সারা দেশের মানুষ জানতে চায়।

তিনি বলেন, ‘দেশবাসীর উদ্দেশে জানাচ্ছি, খালেদা জিয়ার জামিনের যে অধিকার, সেই অধিকার থেকে তাকে বঞ্চিত করা হয়েছে। যত দ্রুত সরকার জামিন দেবে আইনের শাসনের ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।’

ঘটনাপ্রবাহ : খালেদা জিয়ার চিকিৎসা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×