১১ মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৫ এপ্রিল
jugantor
১১ মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৫ এপ্রিল

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:০৩:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

১১ মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৫ এপ্রিল

রাষ্ট্রদ্রোহ-হত্যাসহ ১১ মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন পিছিয়েছে। বুধবার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কেএম ইমরুল কায়েশ আগামী ১৫ এপ্রিল নতুন দিন ধার্য করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী হান্নান ভূঁইয়া। তিনি বলেন, আজ অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু খালেদা জিয়ার সব মামলার কার্যক্রম স্থগিতে হাইকোর্টের আদেশ থাকায় শুনানি পেছানোর আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। শুনানি শেষে বিচারক এ আদেশ দেন।

মামলাগুলোর মধ্যে রয়েছে রাজধানীর দারুসসালাম থানায় করা নাশকতার অভিযোগে ৮টি, যাত্রাবাড়ী থানার দুটি ও রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলা।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৫ জানুয়ারি আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাটি করা হয়। অন্যদিকে যাত্রাবাড়ী থানার মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় আজমেরি গ্লোরি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে পেট্রলবোমা হামলা হয়। এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন মারা যান নূর আলম (৬০) নামে এক যাত্রী।

ওই ঘটনায় ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কেএম নুরুজ্জামান।

অন্যদিকে ২০১৫ সালে দারুসসালাম থানা এলাকায় নাশকতার অভিযোগে আটটি মামলা করা হয়। এই আট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আসামি করা হয়।

১১ মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৫ এপ্রিল

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৯ জানুয়ারি ২০২০, ০৩:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
১১ মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন ১৫ এপ্রিল
খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি

রাষ্ট্রদ্রোহ-হত্যাসহ ১১ মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির দিন পিছিয়েছে। বুধবার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কেএম ইমরুল কায়েশ আগামী ১৫ এপ্রিল নতুন দিন ধার্য করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী হান্নান ভূঁইয়া। তিনি বলেন, আজ অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু খালেদা জিয়ার সব মামলার কার্যক্রম স্থগিতে হাইকোর্টের আদেশ থাকায় শুনানি পেছানোর আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। শুনানি শেষে বিচারক এ আদেশ দেন।

মামলাগুলোর মধ্যে রয়েছে রাজধানীর দারুসসালাম থানায় করা নাশকতার অভিযোগে ৮টি, যাত্রাবাড়ী থানার দুটি ও রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলা।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৫ জানুয়ারি আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাটি করা হয়। অন্যদিকে যাত্রাবাড়ী থানার মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় আজমেরি গ্লোরি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে পেট্রলবোমা হামলা হয়। এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন মারা যান নূর আলম (৬০) নামে এক যাত্রী।

ওই ঘটনায় ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কেএম নুরুজ্জামান।

অন্যদিকে ২০১৫ সালে দারুসসালাম থানা এলাকায় নাশকতার অভিযোগে আটটি মামলা করা হয়। এই আট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আসামি করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : কারাগারে খালেদা জিয়া