তারা কোনোদিনই ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবে না: ইশরাক
jugantor
তারা কোনোদিনই ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবে না: ইশরাক

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৫:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগ আর কখনোই জনগণের ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী হয়ে ক্ষমতায় আসতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন।

শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাবাসের দুই বছর পূর্তিতে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

ইশরাক বলেন, জনগণকে বন্দি করে বেশি দিন এই বাকশাল থাকবে না। জনগণ আপনাদের বিপক্ষে চলে গেছে। আপনারা কোনো দিনই ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবেন না।

ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন জাতির সঙ্গে তামাশা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ২০১৮ সালে আমাদের নেত্রীকে কারাবন্দী করে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে জাতির সঙ্গে তামাশা করেছিল। ভেবেছিলাম আওয়ামী লীগ জনগণের ভাষা বুঝতে পরে অন্তত এবারের সিটি নির্বাচনটা সুষ্ঠু করবে। কিন্তু আমরা দেখেছি ভোট চুরির মাধ্যমে আবারও জাতীর সামনে একটা তামাশার নির্বাচন দিল ক্ষমতাসীনরা।

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সভাপতিত্ব করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, শামা ওবায়েদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ঢাকা উত্তরে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল প্রমুখ।

তারা কোনোদিনই ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবে না: ইশরাক

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৪৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগ আর কখনোই জনগণের ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী হয়ে ক্ষমতায় আসতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন। 

শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাবাসের দুই বছর পূর্তিতে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। 

ইশরাক বলেন, জনগণকে বন্দি করে বেশি দিন এই বাকশাল থাকবে না। জনগণ আপনাদের বিপক্ষে চলে গেছে। আপনারা কোনো দিনই ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে পারবেন না।

ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন জাতির সঙ্গে তামাশা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ২০১৮ সালে আমাদের নেত্রীকে কারাবন্দী করে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে জাতির সঙ্গে তামাশা করেছিল। ভেবেছিলাম আওয়ামী লীগ জনগণের ভাষা বুঝতে পরে অন্তত এবারের সিটি নির্বাচনটা সুষ্ঠু করবে। কিন্তু আমরা দেখেছি ভোট চুরির মাধ্যমে আবারও জাতীর সামনে একটা তামাশার নির্বাচন দিল ক্ষমতাসীনরা।  

সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সভাপতিত্ব করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, শামা ওবায়েদ, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ঢাকা উত্তরে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়াল প্রমুখ।