অভিযোগ নিয়ে ইসির পদক্ষেপ জানতে চেয়ে তাবিথের চিঠি
jugantor
ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন
অভিযোগ নিয়ে ইসির পদক্ষেপ জানতে চেয়ে তাবিথের চিঠি

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:১৫:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অভিযোগ নিয়ে ইসির পদক্ষেপ জানতে চেয়ে তাবিথের চিঠি

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে দাখিল করা অভিযোগের ভিত্তিতে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, তা জানতে চেয়ে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।

বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে চিঠি দেন তিনি। তিন পৃষ্ঠার ওই চিঠিতে নির্বাচন নিয়ে আবারও অভিযোগ তুলে ধরেন এই প্রার্থী।

চিঠিতে তাবিথ আউয়াল উল্লেখকরেন, নির্বাচন-পূর্ব সময় অর্থাৎ নির্বাচনী তফসিল ষোষণার তারিখ থেকে ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশের তারিখ পর্যন্ত সময়কালে আমার প্রতি নির্বাচনের কাজে জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারী, রিটার্নিং অফিসার সর্বোপরি নির্বাচন কমিশনের অসহযোগিতামূলক আচরণ আমাকে যারপরনাই ব্যথিত ও স্তম্ভিত করেছে। নির্বাচন-পূর্ব সময়ে ও নির্বাচন-পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বহু লিখিত আবেদন, নিবেদন, পরামর্শ, অভিযোগ, তথ্য সরবরাহ ইত্যাদি রিটার্নিং অফিসার ও নির্বাচন কমিশন এবং সংশ্লিষ্টদের দিয়েছি। কিন্তু আজও জানতে পারিনি এ বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমার প্রতি এ ধরনের বিমাতাসুলভ আচরণ বর্তমান নির্বাচন কমিশনের চরম অন্যায় ও অবিচার বলে মনে করি। অধিকন্তু আইনানুগ নির্বাচনী প্রচারণাকালে আমার ও আমাদের দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের ওপর এবং কর্মী-সমর্থকদের ওপর ন্যক্কারজনক জঘন্যতম সশস্ত্র হামলা হয়। ওই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ওসি কোনো ব্যবস্থা নেননি, উল্টো তাকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়ে দেশের প্রচলিত বিধি-বিধানকে হেয়প্রতিপন্ন করা হয়েছে।

ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন

অভিযোগ নিয়ে ইসির পদক্ষেপ জানতে চেয়ে তাবিথের চিঠি

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অভিযোগ নিয়ে ইসির পদক্ষেপ জানতে চেয়ে তাবিথের চিঠি
তাবিথ আউয়াল। ফাইল ছবি

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে দাখিল করা অভিযোগের ভিত্তিতে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, তা জানতে চেয়ে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।

বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে চিঠি দেন তিনি। তিন পৃষ্ঠার ওই চিঠিতে নির্বাচন নিয়ে আবারও অভিযোগ তুলে ধরেন এই প্রার্থী।

চিঠিতে তাবিথ আউয়াল উল্লেখ করেন, নির্বাচন-পূর্ব সময় অর্থাৎ নির্বাচনী তফসিল ষোষণার তারিখ থেকে ফলাফল সরকারি গেজেটে প্রকাশের তারিখ পর্যন্ত সময়কালে আমার প্রতি নির্বাচনের কাজে জড়িত কর্মকর্তা-কর্মচারী, রিটার্নিং অফিসার সর্বোপরি নির্বাচন কমিশনের অসহযোগিতামূলক আচরণ আমাকে যারপরনাই ব্যথিত ও স্তম্ভিত করেছে। নির্বাচন-পূর্ব সময়ে ও নির্বাচন-পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বহু লিখিত আবেদন, নিবেদন, পরামর্শ, অভিযোগ, তথ্য সরবরাহ ইত্যাদি রিটার্নিং অফিসার ও নির্বাচন কমিশন এবং সংশ্লিষ্টদের দিয়েছি। কিন্তু আজও জানতে পারিনি এ বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমার প্রতি এ ধরনের বিমাতাসুলভ আচরণ বর্তমান নির্বাচন কমিশনের চরম অন্যায় ও অবিচার বলে মনে করি। অধিকন্তু আইনানুগ নির্বাচনী প্রচারণাকালে আমার ও আমাদের দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের ওপর এবং কর্মী-সমর্থকদের ওপর ন্যক্কারজনক জঘন্যতম সশস্ত্র হামলা হয়। ওই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ওসি কোনো ব্যবস্থা নেননি, উল্টো তাকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়ে দেশের প্রচলিত বিধি-বিধানকে হেয়প্রতিপন্ন করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন-২০২০

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০