ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ফখরুলের চিঠি
jugantor
ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ফখরুলের চিঠি

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৯ মে ২০২০, ১৭:১৬:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ফখরুলের চিঠি

নিজের নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার বিএনপির প্যাডে তিনি এই চিঠি দেন।

চিঠিতে তিনি বলেন, ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আমার নামে বানোয়াট বক্তব্য ও মতামত প্রকাশের বিব্রতকর অবস্থা থেকে আমাকে পরিত্রাণ দেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।

তিনি বলেন, অনেক দিন ধরে লক্ষ্য করছি যে, কুচক্রিমহল কর্তৃক আমার নামে ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে বিভিন্ন বক্তব্য, মন্তব্য ও মতামত প্রকাশ করা হচ্ছে। আমি এর আগেও বলেছি এবং এখনো অত্যন্ত স্পষ্টভাবে বলতে চাই যে, আমার নামে আমি কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলিনি।

এই সমস্ত ‍ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এর কোনো মতামতের সঙ্গে আমার কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই এবং এর কোনো দায়-দায়িত্ব আমার নেই।সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করব- এই সব ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে আমার নামে চালানো থেকে বিরত থাকার জন্য।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ফখরুলের চিঠি

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৯ মে ২০২০, ০৫:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ফখরুলের চিঠি
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

নিজের নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার বিএনপির প্যাডে তিনি এই চিঠি দেন।

চিঠিতে তিনি বলেন, ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আমার নামে বানোয়াট বক্তব্য ও মতামত প্রকাশের বিব্রতকর অবস্থা থেকে আমাকে পরিত্রাণ দেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।

তিনি বলেন, অনেক দিন ধরে লক্ষ্য করছি যে, কুচক্রিমহল কর্তৃক আমার নামে ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে বিভিন্ন বক্তব্য, মন্তব্য ও মতামত প্রকাশ করা হচ্ছে। আমি এর আগেও বলেছি এবং এখনো অত্যন্ত স্পষ্টভাবে বলতে চাই যে, আমার নামে আমি কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলিনি।

এই সমস্ত ‍ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এর কোনো মতামতের সঙ্গে আমার কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই এবং এর কোনো দায়-দায়িত্ব আমার নেই।সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করব- এই সব ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে আমার নামে চালানো থেকে বিরত থাকার জন্য।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন