করোনার দুঃসময়ে মন্ত্রী-এমপিদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না: নজরুল

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ জুন ২০২০, ২০:২৪:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা-১৮ আসনের অন্তর্গত খিলক্ষেত থানা এলাকায় দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানসহ অন্যান্যরা। ছবি: যুগান্তর

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, আজকে করোনার ভাইরাসের দুঃসময়ে এমপি মন্ত্রীরা কোথায়? পত্র পত্রিকায় দেখা যায় এমপি-মন্ত্রীদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ১২-১৩ বছর যাবত সরকারের নির্যাতন নিপীড়নে বিএনপির সবাই কষ্টে আছি। মিথ্যা মামলায় জর্জরিত হয়ে আছি। তারপরও বিএনপি নেতা-কর্মীরা নিজেদের পকেটের টাকা দিয়ে অসহায় গরিব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

সোমবার ঢাকা-১৮ আসনের অন্তর্গত খিলক্ষেত থানা এলাকায় দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। থানা বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

নজরুল ইসলাম বলেন, মানুষের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়ানোর যে শিক্ষা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান দিয়ে গেছেন তা নিয়ে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দেশকে সেখান থেকে এগিয়ে নিয়েছেন। বাংলাদেশে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ হোক তা অনেকই চায় না। এ জন্য ষড়যন্ত্রের মুখে আমাদের পরাজিত করছে। জনগণের ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। জনগণ ভোটের অধিকার পেলে, নির্ভয়ে ভোট দিতে পারলে খালেদা জিয়াই আবার প্রধানমন্ত্রী হবেন।

তিনি বলেন, অতীতে আমরা গণতন্ত্র হত্যা করি নাই। আমাদের সময় কখনো দুর্ভিক্ষ হয় নাই। শহীদ জিয়ার সময়ে একবার খরা হয়েছিল। অনেকে ধারণা করেছিল অনেক লোক মারা যাবে। কিন্তু তিনি উদ্যোগ নিয়ে সব এমপিকে চট্টগ্রাম পাঠিয়ে খাবার নিয়ে যার যার এলাকায় পাঠান। লক্ষ কোটি মানুষ শহীদ জিয়াকে ভালোবেসেছে। আমরা তার কর্মী।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা সবাই কষ্টে আছি। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ভীষণ অসুস্থ। তারপরও তিনি আমাদের ডেকে খোঁজখবর নেন। আমরা কিভাবে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছি কি করছি।ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান অসুস্থ অবস্থায় আছেন। তিনিও সপ্তাহে দুদিন করে খোঁজখবর নেন। এই কাজ করতেন শহীদ জিয়া রহমান। তিনি রাত বারোটায়, একটায়ও আমাদের ফোন দিতেন। বলতেন কি করছেন, ঘুমাচ্ছেন। দেশের মানুষের এত কষ্ট আপনারা কি করে ঘুমান, আমি তো ঘুমাতে পারি না।

যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও খিলক্ষেত থানা বিএনপি'র সভাপতি হাজী এস এম ফজলুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সোহরাব খান স্বপন, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, থানা যুবদলের সভাপতি মোবারক দেওয়ান, সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুরাদ, ৯৬নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি জহির উদ্দিন বাবু , ছাত্রদল ঢাকা-মহানগর উত্তরের সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল বাবু, ৪৩নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রেজাউল মেম্বার, খিলক্ষেত থানা ছাত্রদলের আহবায়ক মনিরুজ্জামান মনির, যুগ্ম-আহবায়ক সৈকতুল ইসলাম সৈকত, মহিলা দলের সূচনা আক্তার, পান্না ইয়াসমিন, সেচ্ছাসেবক দলের আসাদুজ্জামান জিসান, শ্রমিক দলের আব্দুল মালেক, কৃষক দলের ইমানুল হক, মৎসজীবি দলের দুলাল মিয়া প্রমুখ।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত