আ’ লীগের সাবেক এমপি নজরুল ইসলামের মৃত্যু
jugantor
আ’ লীগের সাবেক এমপি নজরুল ইসলামের মৃত্যু

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৩ জুন ২০২০, ১৭:১৬:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম

আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম আর নেই। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় মোহাম্মদপুরের নিজ বাড়িতে আওয়ামী লীগের ৮০ বছর বয়সী প্রবীণ এ নেতার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন তার ছোট ভাই অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল এ আর এম জোয়াহেরুল ইসলাম।

তিনি জানান, সাবেক এমপি অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন।

১৯৭০ সালে পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে ময়মনসিংয়ের ফুলবাড়িয়া-ত্রিশাল সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন অ ন ম নজরুল ইসলাম।

স্বাধীনতার পরে ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় নির্বাচনে ময়মনসিংহ-১৬ (ফুলবাড়িয়া) থেকে আবারও নির্বাচিত হন তিনি।

রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার আগে ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজে শিক্ষকতা করায় অধ্যাপক আনম নজরুল ইসলাম হিসেবেই তিনি পরিচিত।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক নজরুল সত্তরের দশকে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের বিশেষ সহকারীর দায়িত্বও পালন করেছিলেন এ আওয়ামী লীগ নেতা।

জোয়াহেরুল ইসলাম বলেন, তার ভাইকে দাফনের জন্য মরদেহ ফুলবাড়িয়ার লাঙ্গল শিমুল গ্রামে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আমরা উনাকে গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাচ্ছি, আমাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।“

নজরুল ইসলাম তার পরিবারের পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় ছিলেন। মৃত্যুর সময় স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন তিনি।

আ’ লীগের সাবেক এমপি নজরুল ইসলামের মৃত্যু

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৩ জুন ২০২০, ০৫:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম
সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম আর নেই। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় মোহাম্মদপুরের নিজ বাড়িতে আওয়ামী লীগের ৮০ বছর বয়সী প্রবীণ এ নেতার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন তার ছোট ভাই অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল এ আর এম জোয়াহেরুল ইসলাম।

তিনি জানান, সাবেক এমপি অধ্যাপক অ ন ম নজরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন।

১৯৭০ সালে পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে ময়মনসিংয়ের ফুলবাড়িয়া-ত্রিশাল সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন অ ন ম নজরুল ইসলাম।

স্বাধীনতার পরে ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় নির্বাচনে ময়মনসিংহ-১৬ (ফুলবাড়িয়া) থেকে আবারও নির্বাচিত হন তিনি।

রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার আগে ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজে শিক্ষকতা করায় অধ্যাপক আনম নজরুল ইসলাম হিসেবেই তিনি পরিচিত।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক নজরুল সত্তরের দশকে বৃহত্তর ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বাংলাদেশ সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের বিশেষ সহকারীর দায়িত্বও পালন করেছিলেন এ আওয়ামী লীগ নেতা।

জোয়াহেরুল ইসলাম বলেন, তার ভাইকে দাফনের জন্য মরদেহ ফুলবাড়িয়ার লাঙ্গল শিমুল গ্রামে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আমরা উনাকে গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাচ্ছি, আমাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।“

নজরুল ইসলাম তার পরিবারের পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে সবার বড় ছিলেন। মৃত্যুর সময় স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন তিনি।