তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে: ড. কামাল 
jugantor
তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে: ড. কামাল 

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:১৬:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবি

অন্য করো বর্ধিত সভা ডাকার কোনো বৈধ্যতা নেই বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। দলটির শনিবার ব্যানারে জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে একাংশের বর্ধিত সভা ও আগামী ২৬ ডিসেম্বর জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানে বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি এ দাবি করেন।

ড. কামাল হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ‘ওদের কোনো সাংগঠনিক ক্ষমতা এবং এই ধরনের মিটিং করার বৈধতার নেই। এই মিটিংয়ের সাথে আমাদের দল গণফোরামের কোনো সম্পর্ক নেই্।’

তিনি বলেন, ‘তারা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি আমাদের দলের কোনো সিদ্ধান্ত না। যেহেতু এটি আমাদের দলের বিষয় না সেজন্য এই বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

একাংশের আহুত বর্ধিত সভায় বলা হয়েছে আপনাকে কিছু লোক ভুল বুঝাচ্ছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন হোসেন বলেন, ‘এসব কথা তারা বলার জন্য বলছে। এটা তাদের একটা কায়দা-কৌশল। এসব বিষয় আমি কথা বলতে চাই না। এদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নাই। তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে।’

তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে: ড. কামাল 

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবি
ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবি

অন্য করো বর্ধিত সভা ডাকার কোনো বৈধ্যতা নেই বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন। দলটির শনিবার ব্যানারে জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে একাংশের বর্ধিত সভা ও আগামী ২৬ ডিসেম্বর জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠানে বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি এ দাবি করেন। 

ড. কামাল হোসেন যুগান্তরকে বলেন, ‘ওদের কোনো সাংগঠনিক ক্ষমতা এবং এই ধরনের মিটিং করার বৈধতার নেই। এই মিটিংয়ের সাথে আমাদের দল গণফোরামের কোনো সম্পর্ক নেই্।’ 

তিনি বলেন, ‘তারা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি আমাদের দলের কোনো সিদ্ধান্ত না। যেহেতু এটি আমাদের দলের বিষয় না সেজন্য এই বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

একাংশের আহুত বর্ধিত সভায় বলা হয়েছে আপনাকে কিছু লোক ভুল বুঝাচ্ছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন হোসেন বলেন, ‘এসব কথা তারা বলার জন্য বলছে। এটা তাদের একটা কায়দা-কৌশল। এসব বিষয় আমি কথা বলতে চাই না। এদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নাই। তারা দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে।’