'উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকার চাইলে আবেদনও করা হবে'
jugantor
খালেদা জিয়ার সঙ্গে ব্যারিস্টার খোকনের সাক্ষাৎ
'উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকার চাইলে আবেদনও করা হবে'

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৩৭:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নয় জানিয়ে তার আনজীবী ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন বলেছেন, সরকার যদি চায়, চেয়ারপারসনের পরিবার আবেদন করলে দেশে অথবা বিদেশে তিনি উন্নতি চিকিৎসা নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বেঁধে দেয়া শর্ত তুলে নেয়া নেবে-এমন নিশ্চয়তা পেলে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হবে। শনিবার রাতে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

রাত ৮ টার দিকে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় প্রবেশ করেন। জানা গেছে,খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা, বিদেশে যেতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে আইনি পরামর্শ এবং এ সংক্রান্ত আবেদনের বিষয়ে চেয়ারপারসনের সঙ্গে তিনি আলোচনা করেছেন।

এর আগে ২৭ মে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন। এরপর ২৯ আগস্ট দ্বিতীয় দফায় দেখা করেন তিনি। গত ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে সাময়িক মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এরপর থেকে গুলশানে বাসভবন ফিরোজায় আছেন। গত ৩ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় মেয়াদে আরও ছয় মাস সাজা স্থগিত করে সরকার। তবে এক্ষেত্রে আগের দুই শর্ত মানতে হবে তাকে। সেগুলো হলো- এই সময়ে তার ঢাকায় নিজের বাসায় থাকতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না।

জানতে চাইলে মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সরকার চাইলেই শর্ত তুলে নিতে পারে। কারণ, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নেই। করোনা পরিস্থিতির কারণে তার যে চিকিৎসা সেটা হচ্ছে না। সরকার যদি চায় চেয়ারপারসনের পরিবার আবেদন করলে শর্ত তুলে নিবে তাহলে উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে আবেদন করতে কোনো সমস্যা নেই। সেটা সরকার বললেই পারে।

তিনি আরও বলেন, আর আবেদন একটা করাই আছে। প্রয়োজন হলেও সরকার সেটাকেও তারা অনুসরণ করতে পারে। এই মুহুর্তে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার চিকিৎসা প্রয়োজন। আমরা এখানেই বেশি জোর দিচ্ছি।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে ব্যারিস্টার খোকনের সাক্ষাৎ

'উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকার চাইলে আবেদনও করা হবে'

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৩৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নয় জানিয়ে তার আনজীবী ও বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন বলেছেন, সরকার যদি চায়, চেয়ারপারসনের পরিবার আবেদন করলে দেশে অথবা বিদেশে তিনি উন্নতি চিকিৎসা নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে বেঁধে দেয়া শর্ত তুলে নেয়া নেবে-এমন নিশ্চয়তা পেলে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হবে। শনিবার রাতে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

রাত ৮ টার দিকে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় প্রবেশ করেন। জানা গেছে,খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা, বিদেশে যেতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে আইনি পরামর্শ এবং এ সংক্রান্ত আবেদনের বিষয়ে চেয়ারপারসনের সঙ্গে তিনি আলোচনা করেছেন।

এর আগে ২৭ মে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন। এরপর ২৯ আগস্ট দ্বিতীয় দফায় দেখা করেন তিনি। গত ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে সাময়িক মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এরপর থেকে গুলশানে বাসভবন ফিরোজায় আছেন। গত ৩ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় মেয়াদে আরও ছয় মাস সাজা স্থগিত করে সরকার। তবে এক্ষেত্রে আগের দুই শর্ত মানতে হবে তাকে। সেগুলো হলো- এই সময়ে তার ঢাকায় নিজের বাসায় থাকতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না।

জানতে চাইলে মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সরকার চাইলেই শর্ত তুলে নিতে পারে। কারণ, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নেই। করোনা পরিস্থিতির কারণে তার যে চিকিৎসা সেটা হচ্ছে না। সরকার যদি চায় চেয়ারপারসনের পরিবার আবেদন করলে শর্ত তুলে নিবে তাহলে উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে আবেদন করতে কোনো সমস্যা নেই। সেটা সরকার বললেই পারে।

তিনি আরও বলেন, আর আবেদন একটা করাই আছে। প্রয়োজন হলেও সরকার সেটাকেও তারা অনুসরণ করতে পারে। এই মুহুর্তে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার চিকিৎসা প্রয়োজন। আমরা এখানেই বেশি জোর দিচ্ছি।