বিএনপি নেতা রিজভীকে কেবিনে স্থানান্তর
jugantor
বিএনপি নেতা রিজভীকে কেবিনে স্থানান্তর

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৯ অক্টোবর ২০২০, ১৮:০৭:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে বিএনপি নেতা রিজভীকে দেখতে যান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) থেকে সোমবার কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে।

তার একান্ত সহকারি আরিফুর রহমান তুষার যুগান্তরকে বলেন, ‘স্যারকে সকাল ১০টায় কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। স্যারের শারীরিক দূবর্লতা এখনও কাটেনি’।

গত ১৫ অক্টোবর রিজভীর হৃদযন্ত্রে এনজিওগ্রাম করা হয়।

চিকিৎসকরা জানান, উনার (রিজভী) একটা ব্লক ছিল, সেটা ইনজেকশন দিয়ে অপসারণ করা হয়েছে। তবে ২৮ দিন পর আবার এনজিওগ্রাম করে দেখা হবে ব্লকটি আছে কিনা।

গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের এক মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে নিজের গাড়িতে উঠার পর রিজভী বুকে প্রচণ্ড ব্যাথা অনুভব করেন। পরে তাকে প্রথমে কাকরাইলে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক জানান, তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। সেখান থেকে তাকে ল্যাব এইড হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক সোহরাব উজ্জামানের তত্ত্বাবাবধায়নে চিকিৎসাধীন আছেন তিনি। দেশবাসীর কাছে তার স্বামীর আশু রোগমুক্তি কামনায় দোয়া চেয়েছেন রিজভীর সহধর্মিনী আরজুমান আরা বেগম আইভি।

বিএনপি নেতা রিজভীকে কেবিনে স্থানান্তর

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে বিএনপি নেতা রিজভীকে দেখতে যান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি
ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে বিএনপি নেতা রিজভীকে দেখতে যান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ছবি

রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) থেকে সোমবার কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। 

তার একান্ত সহকারি আরিফুর রহমান তুষার যুগান্তরকে বলেন, ‘স্যারকে সকাল ১০টায় কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। স্যারের শারীরিক দূবর্লতা এখনও কাটেনি’।

গত ১৫ অক্টোবর রিজভীর হৃদযন্ত্রে এনজিওগ্রাম করা হয়। 

চিকিৎসকরা জানান, উনার (রিজভী) একটা ব্লক ছিল, সেটা ইনজেকশন দিয়ে অপসারণ করা হয়েছে।  তবে ২৮ দিন পর আবার এনজিওগ্রাম করে দেখা হবে ব্লকটি আছে কিনা।

গত ১৩ অক্টোবর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের এক মানববন্ধন কর্মসূচি শেষে নিজের গাড়িতে উঠার পর রিজভী বুকে প্রচণ্ড ব্যাথা অনুভব করেন।  পরে তাকে প্রথমে কাকরাইলে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক জানান, তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন।  সেখান থেকে তাকে ল্যাব এইড হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক সোহরাব উজ্জামানের তত্ত্বাবাবধায়নে চিকিৎসাধীন আছেন তিনি।  দেশবাসীর কাছে তার স্বামীর আশু রোগমুক্তি কামনায় দোয়া চেয়েছেন রিজভীর সহধর্মিনী আরজুমান আরা বেগম আইভি।