‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে দায় সরকারকে নিতে হবে’

প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল ২০১৮, ২২:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

কারাবন্দি খালেদা জিয়ার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠনকে ‘লোক দেখানো’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

মওদুদ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসনকে এত দিন যারা চিকিৎসা দিয়ে আসছেন তাদের দিয়েই তার চিকিৎসা করাতে হবে। কোনো কারণে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে সেই দায় সরকারকে নিতে হবে বলেও হুশিয়ার করেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। মওদুদ আহমদ বলেন, ‘সরকার মেডিকেল বোর্ড করেছে। এই সরকার মানুষকে দেখানোর জন্য নানা রকমের কৌশল অবলম্বন করেছে। এটা দুরভিসন্ধিমূলক। সরকার যে মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছে তা লোক দেখানো।’

এ সময় সংশোধিত জেলকোড অনুযায়ী কেউ জেলে যাওয়ার আগে যে চিকিৎসকের অধীনে চিকিৎসা নিতেন ওই চিকিৎসককে দিয়েই তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নিয়মের কথা স্মরণ করিয়ে দেন সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ আহমদ।

তিনি বলেন, ‘আজকে দুই মাসের উপরে হয়ে গেছে খালেদা জিয়া জেলখানায় আছেন। আমরা যখন তার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলাম বিএনপি চেয়ারপারসন নিজেই আমাদের বলেছেন- তিনি মোটামুটি ভালোই আছেন। তবে তার ব্যথাটা একটু বেড়েছে।’

মওদুদ বলেন, ‘এখন কাকে দরকার? যারা ১০-২০ বছর ধরে তাকে চিকিৎসা দিয়ে সেবা করেছেন, পরামর্শ দিয়েছেন তাদের। সেই চিকিৎসকই জানতে পারবে কীভাবে রোগীর চিকিৎসা করা যায়। হঠাৎ করে নতুন একজন চিকিৎসক আনবেন এটাতে লাভ হবে না।’

তিনি বলেন, ‘আজকে যদি তার স্বাস্থ্যের কোনো রকমের অবনতি ঘটে তাহলে সম্পূর্ণ দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে। এ দেশের মানুষ এই সরকারকে ক্ষমা করবে না। আমরা চাই না খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হোক।’

খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলন প্রসঙ্গে মওদুদ বলেন, ‘তার মুক্তির জন্য আইনি লড়াই করব। পাশাপাশি রাজপথেও থাকব। আইনি লড়াইয়ের সীমাবদ্ধতা আছে, কিন্তু জনতার আন্দোলনের সীমাবদ্ধতা নেই। সময় খুব কম। সে জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিতে হবে। এই আন্দোলনকে ধীরে ধীরে চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। তখন সরকার বাধ্য হবে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে। এর কোনো বিকল্প নেই। যদি সরকার সমঝোতায় না আসে এর উত্তর রাজপথে দেয়া হবে। খালেদা জিয়াকে নিয়েই একাদশ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সভার আয়োজন করে ঢাকাস্থ ফেনী জাতীয়তাবাদী ছাত্র ও যুব ফোরাম।

সংগঠনটির সভাপতি ওমর ফারুক ডালিমের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু, আবদুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ভিপি জয়নাল আবেদীন, প্রচার সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, রেহানা আখতার রানু, ওয়াদুদ ভূঁইয়া প্রমুখ।