রিজভীর শারীরিক অবস্থা ভালো, দুএকদিনের মধ্যে বাসায় ফিরবেন 
jugantor
রিজভীর শারীরিক অবস্থা ভালো, দুএকদিনের মধ্যে বাসায় ফিরবেন 

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৪ অক্টোবর ২০২০, ১৪:৪০:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে। দুএকদিনের মধ্যে হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় ফিরবেন তিনি।

তার ব্যক্তিগত সহকারী আরিফুর রহমান তুষার যুগান্তরকে জানান, ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রিজভীর শারীরিক অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে। আজকালের মধ্যে তিনি হাসপাতাল থেকে রিলিজ পেতে পারেন।

‘তবে তিন সপ্তাহ পর আবার হাসপাতালে ভর্তি হয়ে এনজিওগ্রাম করাতে হবে। তার আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) তার এমপিআই টেস্ট করাতে হবে।’

এদিকে অসুস্থতার পর দলের নেতাকর্মীসহ সারা দেশের মানুষ তার জন্য দোয়া করায়, অনেকে হাসপাতালে গিয়ে খোঁজখবর নেয়ায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞ জানিয়েছেন রিজভী।

উল্লেখ্য, গত ১৪ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শ্রমিক দলের মানববন্ধন শেষ করে দলীয় কার্যালয়ে ফেরার পথে রিজভীর হার্ট অ্যাটাক হয়। প্রথমে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে তার এনজিওগ্রাম করা হয়। ল্যাবএইড হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক সোহরাবুজ্জামান ও অধ্যাপক জাহেদের নেতৃত্বে তার এনজিওগ্রাম করা হয়।

রিজভীর হার্টে একটি ব্লক ধরা পড়লেও সেটি ইনজেকশনের মাধ্যমে কিছুটা অপসারণ করা হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর আবার পরীক্ষা করাতে হবে। পরীক্ষার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রিজভীর শারীরিক অবস্থা ভালো, দুএকদিনের মধ্যে বাসায় ফিরবেন 

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৪ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে। দুএকদিনের মধ্যে হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় ফিরবেন তিনি।

তার ব্যক্তিগত সহকারী আরিফুর রহমান তুষার যুগান্তরকে জানান, ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রিজভীর শারীরিক অবস্থা অনেকটাই উন্নতির দিকে। আজকালের মধ্যে তিনি হাসপাতাল থেকে রিলিজ পেতে পারেন। 

‘তবে তিন সপ্তাহ পর আবার হাসপাতালে ভর্তি হয়ে এনজিওগ্রাম করাতে হবে। তার আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) তার এমপিআই টেস্ট করাতে হবে।’

এদিকে অসুস্থতার পর দলের নেতাকর্মীসহ সারা দেশের মানুষ তার জন্য দোয়া করায়, অনেকে হাসপাতালে গিয়ে খোঁজখবর নেয়ায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞ জানিয়েছেন রিজভী।

উল্লেখ্য, গত ১৪ অক্টোবর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শ্রমিক দলের মানববন্ধন শেষ করে দলীয় কার্যালয়ে ফেরার পথে রিজভীর হার্ট অ্যাটাক হয়। প্রথমে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

হাসপাতালে তার এনজিওগ্রাম করা হয়। ল্যাবএইড হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক সোহরাবুজ্জামান ও অধ্যাপক জাহেদের নেতৃত্বে তার এনজিওগ্রাম করা হয়। 

রিজভীর হার্টে একটি ব্লক ধরা পড়লেও সেটি ইনজেকশনের মাধ্যমে কিছুটা অপসারণ করা হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর আবার পরীক্ষা করাতে হবে। পরীক্ষার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।