সেরে ‍উঠছেন রিজভী
jugantor
সেরে ‍উঠছেন রিজভী

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৩ নভেম্বর ২০২০, ১৫:৪৫:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। শনিবার রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. সোহরাবুজ্জামানের নেতৃত্বে তার হার্টে রিং বসানোর মাধ্যমে এনজিওপ্লাস্টি করা হয়।

এরপর তার স্বাস্থ্যের অবস্থার উন্নতি হয়। সোমবার রিজভী অনেকটাই সুস্থতা অনুভব করছেন বলে জানিয়েছেন বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু।

তাকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে এবং আগামীকাল মঙ্গলবার তিনি বাসায় ফিরতে পারবেন বলেও জানান এ চিকিৎসক।

রিজভীর ব্যক্তিগত সহকারী আরিফুর রহমান তুষার জানান, রিজভী ল্যাবএইড হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, স্টাফসহ যারা তার জন্য দোয়া করেছেন, খোঁজখবর নিয়েছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

১৩ অক্টোবর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন শেষে তার হার্টঅ্যাটাক হয়। প্রথমে তাকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ১১ নভেম্বর বিএসএমএমইউতে তার হার্টের এমপিআই টেস্ট করা হয়। এমপিআই পরীক্ষায় কিছু সমস্যা ধরা পড়ে। তাই শনিবার আবারও তার এনজিওগ্রাম করে সমস্যা ধরা পড়ায় তার হার্টে রিং পরানো হয়।

সেরে ‍উঠছেন রিজভী

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। শনিবার রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. সোহরাবুজ্জামানের নেতৃত্বে তার হার্টে রিং বসানোর মাধ্যমে এনজিওপ্লাস্টি করা হয়।

এরপর তার স্বাস্থ্যের অবস্থার উন্নতি হয়। সোমবার রিজভী অনেকটাই সুস্থতা অনুভব করছেন বলে জানিয়েছেন বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মনোয়ারুল কাদির বিটু।

তাকে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে এবং আগামীকাল মঙ্গলবার তিনি বাসায় ফিরতে পারবেন বলেও জানান এ চিকিৎসক।

রিজভীর ব্যক্তিগত সহকারী আরিফুর রহমান তুষার জানান, রিজভী ল্যাবএইড হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, স্টাফসহ যারা তার জন্য দোয়া করেছেন, খোঁজখবর নিয়েছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

১৩ অক্টোবর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন শেষে তার হার্টঅ্যাটাক হয়। প্রথমে তাকে ধানমণ্ডির ল্যাবএইড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ১১ নভেম্বর বিএসএমএমইউতে তার হার্টের এমপিআই টেস্ট করা হয়। এমপিআই পরীক্ষায় কিছু সমস্যা ধরা পড়ে। তাই শনিবার আবারও তার এনজিওগ্রাম করে সমস্যা ধরা পড়ায় তার হার্টে রিং পরানো হয়।