জনগণ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে: এনডিপি
jugantor
জনগণ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে: এনডিপি

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২০, ২১:৫৪:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

জনগণ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে: এনডিপি

বিরোধী জনমত দমনে সরকার গুম, খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড স্বাভাবিকতায় পরিণত করেছে বলে দাবি করেছেন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) নেতারা।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দলটির উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি করেন তারা।

এনডিপি চেয়ারম্যান কেএম আবু তাহের বলেন, রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ ও দলীয় অপরাধীদের ছত্রছায়া দেয়ার কারণে বিচার ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। যে কারণে সর্বত্র চাঁদাবাজি, জমি দখল, ধর্ষণ, দুর্নীতি ও লুটপাট মহামারী আকার ধারণ করেছে। জনগণ এক দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে।

এ অবৈধ সরকারের ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই। অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন দিতে হবে। অন্যথায় জনগণের সরকার কায়েমের লক্ষ্যে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, বিএসএফ সীমান্তে পাখির মতো বাংলাদেশিদের হত্যা করে যাচ্ছে, অথচ সরকার কোনো প্রতিবাদ করছে না। ইসলামী চেতনাবোধ ও সংস্কৃতির ওপর একের পর এক আঘাত হানা হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে ভাস্কর্যের নামে নারীদের নগ্নমূর্তি স্থাপন করে মুসলিম সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। সার্বিকভাবে দেশে এক অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

মানববন্ধনে এনডিপি চেয়ারম্যান সরকারকে অবৈধ ও ব্যর্থ আখ্যা দিয়ে অনতিবিলম্বে পদত্যাগের দাবি জানান।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- ইসলামী ঐক্যজোটের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মাওলানা শওকত আমীন, বাংলাদেশ মুসলিম সমাজের চেয়ারম্যান ডা. মুহাম্মদ মাসুদ হোসেন, বাংলাদেশ পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. সিদ্দিকুর রহমান, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা ওবায়দুল হক, বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক পার্টি-বিডিপির চেয়ারম্যান ডা. মনির হোসেন চৌধুরী, বাংলাদেশ মুসলিম সমাজের মহাসচিব মাসুম হোসেন, এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মো. মফিজুর রহমান লিটন, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মুসা মণ্ডল, যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি মুহাম্মদ দীপু খান প্রমুখ।

জনগণ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে: এনডিপি

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জনগণ দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে: এনডিপি
ছবি: সংগৃহীত

বিরোধী জনমত দমনে সরকার গুম, খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড স্বাভাবিকতায় পরিণত করেছে বলে দাবি করেছেন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এনডিপি) নেতারা। 

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দলটির উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি করেন তারা। 
 
এনডিপি চেয়ারম্যান কেএম আবু তাহের বলেন, রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ ও দলীয় অপরাধীদের ছত্রছায়া দেয়ার কারণে বিচার ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। যে কারণে সর্বত্র চাঁদাবাজি, জমি দখল, ধর্ষণ, দুর্নীতি ও লুটপাট মহামারী আকার ধারণ করেছে। জনগণ এক দুর্বিষহ জীবনযাপন করছে। 

এ অবৈধ সরকারের ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই। অনতিবিলম্বে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন দিতে হবে। অন্যথায় জনগণের সরকার কায়েমের লক্ষ্যে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

তিনি বলেন, বিএসএফ সীমান্তে পাখির মতো বাংলাদেশিদের হত্যা করে যাচ্ছে, অথচ সরকার কোনো প্রতিবাদ করছে না। ইসলামী চেতনাবোধ ও সংস্কৃতির ওপর একের পর এক আঘাত হানা হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে ভাস্কর্যের নামে নারীদের নগ্নমূর্তি স্থাপন করে মুসলিম সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। সার্বিকভাবে দেশে এক অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

মানববন্ধনে এনডিপি চেয়ারম্যান সরকারকে অবৈধ ও ব্যর্থ আখ্যা দিয়ে অনতিবিলম্বে পদত্যাগের দাবি জানান।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- ইসলামী ঐক্যজোটের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মাওলানা শওকত আমীন, বাংলাদেশ মুসলিম সমাজের চেয়ারম্যান ডা. মুহাম্মদ মাসুদ হোসেন, বাংলাদেশ পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. সিদ্দিকুর রহমান, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা ওবায়দুল হক, বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক পার্টি-বিডিপির চেয়ারম্যান ডা. মনির হোসেন চৌধুরী, বাংলাদেশ মুসলিম সমাজের মহাসচিব মাসুম হোসেন, এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মো. মফিজুর রহমান লিটন, এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মুসা মণ্ডল, যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি মুহাম্মদ দীপু খান প্রমুখ।