খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোনো নির্বাচন হবে না : রিজভী

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ১২:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

 

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছাড়া কোনো নির্বাচন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপি চেয়ারপারসনকে ছাড়া জনগণ কোনো নির্বাচন হতে দেবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, এবার জনগণের ভোটাধিকার জনগণ প্রয়োগ করবেই। যে কোনো ন্যায্য দাবিতে আন্দোলন কখনও বৃথা যায় না। সাধারণ শিক্ষার্থীদের ন্যায্য আন্দোলনের কাছে সরকার যেভাবে মাথানত করেছে, তাতে যুবক-যুবতী, তরুণ-তরুণীসহ সাধারণ মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে পাওয়া, দেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা, মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার ন্যায্য আন্দোলনও বৃথা যাবে না। 

‘খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই সেই আন্দোলনে বিজয় অর্জিত হবেই। খালেদা জিয়াবিহীন জাতীয় নির্বাচন আর এ দেশে অনুষ্ঠিত হবে না, জনগণ তা হতে দেবে না। বিএনপি চেয়ারপারসনকে মুক্ত করতে এবং মানুষের ভোটের অধিকার ফিরে পেতে যে আন্দোলন চলছে, সেই আন্দোলনের বিজয় অতিসন্নিকটে। চক্রান্ত করে বন্দুকের জোরে মানুষের অধিকারকে দমিয়ে রাখা যাবে না।’

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে রিজভী বলেন, গতকাল প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে বলেছেন- জনগণ ভোট দিলে আগামীতে আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় আসবে। আপনি কী জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে এখন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন? আপনি তো নিজের ভোটও নিজেকে দেননি। দেশ পরিচালনা করতে আপনাদের তো জনগণের ভোটের প্রয়োজন হয় না। আপনাদের মুখে জনগণের নিকট ভোট চাওয়ার কথা রসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয়। 

আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে, তখনই দেশে দুর্ভিক্ষ নামে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ভোটারবিহীন সরকারের দুঃশাসন, লুটপাট ও দুর্নীতির করালগ্রাসে দেশে এখন নীরব দুর্ভিক্ষ চলছে। মানুষ এখন দুবেলা দুমুঠো ভাতও পাচ্ছে না। 

‘গতকাল কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে দরিদ্র ও ক্ষুধার্ত মানুষ সরকার ঘোষিত ১০ টাকা কেজির চাল নিতে গেলে যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলার শিকার হয়। ছাত্রলীগ-যুবলীগ ১০ টাকা কেজির চাল কালোবাজারে বিক্রির ঘটনায় নিজেদের ভাগাভাগি নিয়ে দফায় দফায় গুলিবর্ষণ, আক্রমণ ও সংঘর্ষ চলে। বিক্ষুব্ধ জনতা ছাত্রলীগ-যুবলীগ ও আওয়ামী লীগ মনোনীত ডিলারদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করলে একপর্যায়ে এ ক্ষুধার্ত মানুষগুলোর ওপর গুলি চালায় তারা’, যোগ করেন রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মা ফাতেমা আমিনের  মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।