সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে
jugantor
সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২০:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে

বাংলাদেশের রাজনীতির ‘রহস্য পুরুষ’ সিরাজুল আলম খান (দাদাভাই) অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

তিনি বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হাই ডেফিসিয়েন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) ভর্তি রয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢামেক পরিচালক নাজমুল হক। তিনি জানান, প্রবীণ এই রাজনীতিককে বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। তার চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তাকে আজ কেবিনে স্থানান্তর করা হতে পারে।

জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র থেকে সম্প্রতি দেশে আসা সিরাজুল আলম খানকে বুধবার রাতে জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

৮০ বছর বয়সী সিরাজুল আলম খান উচ্চ রক্তচাপসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন।

সিরাজুল আলমের শারীরিক অবস্থা নিয়ে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহিল কাইয়ুম জানান, মাইল্ড হার্টঅ্যাটাকে আক্রান্ত হলে বুধবার রাতে এ বর্ষীয়ান রাজনীতিককে জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা দেওয়ার পর রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, সিরাজুল আলম খানের হার্টে আগে অপারেশন হয়েছিল। এ ছাড়া কোমরের হাড় ভেঙে যাওয়ায় হিপ ট্রান্সপ্লান্ট করতে হয়েছে।

গত শতকের ষাটের দশকে স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ছাত্রলীগের যে ‘নিউক্লিয়াস’ আলোচিত ছিল, তার উদ্যোক্তা ছিলেন সিরাজুল আলম খান। তাকে অনেকে ‘দাদাভাই’ নামে ডাকত। স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ ভেঙে জাসদ গঠনের উদ্যোক্তাও ছিলেন তিনি। সিরাজুল আলম খান সচারচর জনসম্মুখে আসেন না এবং কোনো বক্তৃতা-বিবৃতি দেন না। তবে আড়ালে থেকেই রাজনৈতিক তৎপরতার জন্য তাকে ঘিরে রহস্যের সৃষ্টি হয়।

দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্রে থেকে সিরাজুল আলম খান সম্প্রতি দেশে ফেরেন। তিনি রাজধানীর কলাবাগানে ভাইদের বাসায় ওঠেন।

সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সিরাজুল আলম খান অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে
ফাইল ছবি

বাংলাদেশের রাজনীতির ‘রহস্য পুরুষ’ সিরাজুল আলম খান (দাদাভাই) অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

তিনি বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হাই ডেফিসিয়েন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) ভর্তি রয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢামেক পরিচালক নাজমুল হক। তিনি জানান, প্রবীণ এই রাজনীতিককে বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়। তার চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তাকে আজ কেবিনে স্থানান্তর করা হতে পারে।

জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্র থেকে সম্প্রতি দেশে আসা সিরাজুল আলম খানকে বুধবার রাতে জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।  

৮০ বছর বয়সী সিরাজুল আলম খান উচ্চ রক্তচাপসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন।

সিরাজুল আলমের শারীরিক অবস্থা নিয়ে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহিল কাইয়ুম জানান, মাইল্ড হার্টঅ্যাটাকে আক্রান্ত হলে বুধবার রাতে এ বর্ষীয়ান রাজনীতিককে জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা দেওয়ার পর রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা যায়, সিরাজুল আলম খানের হার্টে আগে অপারেশন হয়েছিল।  এ ছাড়া কোমরের হাড় ভেঙে যাওয়ায় হিপ ট্রান্সপ্লান্ট করতে হয়েছে।  

গত শতকের ষাটের দশকে স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ছাত্রলীগের যে ‘নিউক্লিয়াস’ আলোচিত ছিল, তার উদ্যোক্তা ছিলেন সিরাজুল আলম খান।  তাকে অনেকে ‘দাদাভাই’ নামে ডাকত। স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ ভেঙে জাসদ গঠনের উদ্যোক্তাও ছিলেন তিনি। সিরাজুল আলম খান সচারচর জনসম্মুখে আসেন না এবং কোনো বক্তৃতা-বিবৃতি দেন না। তবে আড়ালে থেকেই রাজনৈতিক তৎপরতার জন্য তাকে ঘিরে রহস্যের সৃষ্টি হয়।

দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্রে থেকে সিরাজুল আলম খান সম্প্রতি দেশে ফেরেন। তিনি রাজধানীর কলাবাগানে ভাইদের বাসায় ওঠেন।