রাজধানীতে গভীর রাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন রিজভী
jugantor
রাজধানীতে গভীর রাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন রিজভী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:০৬:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীতে গভীর রাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন রিজভী

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে গভীর রাতে অসহায়, গরিব ও দুস্থ মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের (জেডআরএফ) উদ্যোগে মঙ্গলবার রাতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে, সুপ্রিমকোর্ট চত্বর এবং ধানমণ্ডির তাকওয়া মসজিদ এলাকার ফুটপাতে দরিদ্র শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

জেডআরএফের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার অসুস্থতার কারণে উপস্থিত হতে পারেননি। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

জেডআরএফ কর্তৃক গঠিত জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ডা. সরকার মাহাবুব আহমেদ শামীমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন নবী খান সোহেল।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এনামুল হক চৌধুরী, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের ডা. শাহ মুহাম্মদ আমানউল্লাহ, বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান চুন্নু, কামরুল হাসান সাইফুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসাধারণ সম্পাদক কাজী ইফতেখায়রুজ্জামান শিমুল, মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক গাজী নজরুল ইসলাম, মোর্শেদ আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ছাত্রদলের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম আকাশ প্রমুখ।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘জেল-জুলুম নির্যাতন উপেক্ষা করে সবসময় মানবকল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে বিএনপি। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যখন মুক্ত ছিলেন, তখন প্রতি বছরই তিনি শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতেন, শীতবস্ত্র বিতরণ করতেন। আজ তিনি গৃহবন্দি।’

তিনি বলেন, নানা নিপীড়ন নির্যাতন সহ্য করেও মানবকল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। অথচ সরকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না। শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল। কোনো মন্ত্রী-এমপিদের সেখানে সহায়তা করতে দেখছি না। তারা ঘরের ভেতরে আরাম আয়েশে থেকে গলাবাজি করছেন। দেশের মানুষ মরল নাকি বাঁচল সেদিকে তাদের কোনো নজর নেই।

রাজধানীতে গভীর রাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন রিজভী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২০ জানুয়ারি ২০২১, ০২:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাজধানীতে গভীর রাতে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন রিজভী
ছবি: যুগান্তর

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে গভীর রাতে অসহায়, গরিব ও দুস্থ মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। 

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের (জেডআরএফ) উদ্যোগে মঙ্গলবার রাতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে, সুপ্রিমকোর্ট চত্বর এবং ধানমণ্ডির তাকওয়া মসজিদ এলাকার ফুটপাতে দরিদ্র শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। 

জেডআরএফের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার অসুস্থতার কারণে উপস্থিত হতে পারেননি। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। 

জেডআরএফ কর্তৃক গঠিত জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ডা. সরকার মাহাবুব আহমেদ শামীমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন নবী খান সোহেল।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এনামুল হক চৌধুরী, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের ডা. শাহ মুহাম্মদ আমানউল্লাহ, বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান চুন্নু, কামরুল হাসান সাইফুল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসাধারণ সম্পাদক কাজী ইফতেখায়রুজ্জামান শিমুল, মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক গাজী নজরুল ইসলাম, মোর্শেদ আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব, বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ছাত্রদলের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম আকাশ প্রমুখ।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘জেল-জুলুম নির্যাতন উপেক্ষা করে সবসময় মানবকল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে বিএনপি। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যখন মুক্ত ছিলেন, তখন প্রতি বছরই তিনি শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতেন, শীতবস্ত্র বিতরণ করতেন। আজ তিনি গৃহবন্দি।’

তিনি বলেন, নানা নিপীড়ন নির্যাতন সহ্য করেও মানবকল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি আমরা। অথচ সরকার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না। শীতে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল। কোনো মন্ত্রী-এমপিদের সেখানে সহায়তা করতে দেখছি না। তারা ঘরের ভেতরে আরাম আয়েশে থেকে গলাবাজি করছেন। দেশের মানুষ মরল নাকি বাঁচল সেদিকে তাদের কোনো নজর নেই।