আ.লীগ করায় মাকে ‘মা’ ডাকেন না ছাত্রদল নেতা
jugantor
আ.লীগ করায় মাকে ‘মা’ ডাকেন না ছাত্রদল নেতা

  ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি  

০২ মার্চ ২০২১, ১৩:৩০:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

মা আওয়ামী লীগের রাজনীতি করায় তাকে ‘মা’ বলে ডাকেন না ছাত্রদল নেতা। তিনি মা ডাকেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে।

ওই ছাত্রদল নেতার নাম এম রিফাত বিন জিয়া। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটির আহ্বায়ক। তা মায়ের নাম বেবি ইয়াসমিন। তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির ৩০ নম্বর সদস্য।
আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে উপজেলা ছাত্রদলের মূল পদে আসায় তোলপাড় চলছে। ছাত্রদলের একটি অংশ এ কমিটি মেনে নিতে পারছে না।
২৪ ফেব্রুয়ারি ২১ সদস্যের এই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। এর পরই তোপের মুখে পড়েন রিফাত বিন জিয়া।
এমতাবস্থায় রোববার রাতে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমার ‘মা’ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত হওয়ার কারণে আমি ‘মা’ ডাক থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছি। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এখন আমার ‘মা’। জিয়া পরিবার আমার পরিবার।
জিয়া বলেন, ১৯৭৯ সাল থেকে আমার বাবা বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত থাকার কারণে এরশাদবিরোধী আন্দোলনের সময় তিনি একাধিকবার কারাবরণও করেছিলেন। অথচ নবগঠিত সরাইল উপজেলা ছাত্রদলকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করতে আমাকে নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।
নিজের রাজনীতি নিয়ে জিয়া বলেন, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে ছাত্রদলের রাজনীতিতে সক্রিয় আছি। ২০১৮ সালে পাকশিমুল ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। আজ কেন এত প্রশ্ন?
তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে দাবি করে ছাত্রদল নেতা জিয়া বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তিনি মিথ্যা অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ঘোষণা দেন।
প্রসঙ্গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ছাত্রদল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়। এতে আহ্বায়ক এম রিফাত বিন জিয়া ও সদস্য সচিব করা হয় আমানউল্লাহ আমানকে। নবগঠিত সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের এই আহ্বায়ক কমিটিকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের বিএনপির সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া।

আ.লীগ করায় মাকে ‘মা’ ডাকেন না ছাত্রদল নেতা

 ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি 
০২ মার্চ ২০২১, ০১:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মা আওয়ামী লীগের রাজনীতি করায় তাকে ‘মা’ বলে ডাকেন না ছাত্রদল নেতা।  তিনি মা ডাকেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে।

ওই ছাত্রদল নেতার নাম এম রিফাত বিন জিয়া। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটির আহ্বায়ক। তা মায়ের নাম বেবি ইয়াসমিন।  তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির ৩০ নম্বর সদস্য। 
আওয়ামী লীগ নেত্রীর ছেলে উপজেলা ছাত্রদলের মূল পদে আসায় তোলপাড় চলছে।  ছাত্রদলের একটি অংশ এ কমিটি মেনে নিতে পারছে না। 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২১ সদস্যের এই আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। এর পরই তোপের মুখে পড়েন রিফাত বিন জিয়া। 
এমতাবস্থায় রোববার রাতে এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমার ‘মা’ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত হওয়ার কারণে আমি ‘মা’ ডাক থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছি। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এখন আমার ‘মা’।  জিয়া পরিবার আমার পরিবার।  
জিয়া বলেন, ১৯৭৯ সাল থেকে আমার বাবা বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত থাকার কারণে এরশাদবিরোধী আন্দোলনের সময় তিনি একাধিকবার কারাবরণও করেছিলেন। অথচ নবগঠিত সরাইল উপজেলা ছাত্রদলকে সাংগঠনিকভাবে দুর্বল করতে আমাকে নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।
নিজের রাজনীতি নিয়ে জিয়া বলেন, দীর্ঘ ১২ বছর ধরে ছাত্রদলের রাজনীতিতে সক্রিয় আছি। ২০১৮ সালে পাকশিমুল ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। আজ কেন এত প্রশ্ন? 
তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে দাবি করে ছাত্রদল নেতা জিয়া বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তিনি মিথ্যা অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার ঘোষণা দেন।
প্রসঙ্গত ২৪ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় ছাত্রদল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের ২১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়। এতে আহ্বায়ক এম রিফাত বিন জিয়া ও সদস্য সচিব করা হয় আমানউল্লাহ আমানকে। নবগঠিত সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের এই আহ্বায়ক কমিটিকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের বিএনপির সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া।   
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন