আলেমদের গ্রেফতারের নিন্দা জানালেন শফীপুত্র আনাস মাদানী
jugantor
আলেমদের গ্রেফতারের নিন্দা জানালেন শফীপুত্র আনাস মাদানী

  যুগান্তর ডেস্ক  

২০ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৫৯:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

আলেমদের গ্রেফতারের নিন্দা জানালেন শফীপুত্র আনাস মাদানী

পবিত্র রমজানে সারাদেশে আলেম, শিক্ষক ও মাদ্রাসা ছাত্রদের গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়েছেন আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহ এর আমির মাওলানা আনাস মাদানী।

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে বিচারের নামে নিরপরাধ কাউকে যেন অযথা হয়রানির শিকার না হতে হয় এ বিষয়ে সরকারকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। প্রকৃত দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হোক, এটা আমাদেরও দাবি।

সোমবার রাতে আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহ বাংলাদেশের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ সালমান স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এসব দাবি করে আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে।

বিবৃতিতে মাওলানা আনাস মাদানী বলেন, আব্বাজান শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) ছিলেন এদেশের কওমি মাদ্রাসা জন্য আল্লাহর বিশেষ রহমত স্বরূপ। তিনি সবসময় ইসলাম ও মুসলমানের কল্যাণের কথা ভেবেছেন। সকল দল ও মতের মানুষের সঙ্গে সম্মানজনক সম্পর্ক বজায় রেখে চলছেন।

ইসলামি শিক্ষা তাহজিব ও তমদ্দুনকে সবর্স্তরের জনসাধারণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে এদেশের কওমি মাদ্রাসাগুলোর যে বৃহৎ অবদান রয়েছে তাকে সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সঠিকভাবে উপস্থাপন করায় তার অবদান অনস্বীকার্য।

একই সঙ্গে মাওলানা মাদানী সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন, লকডাউনের মধ্যেও কওমি মাদ্রাসার শিক্ষাপদ্ধতির প্রতি সুবিচার করে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় হলেও মাদরাসাগুলোকে অতি দ্রুত খুলে দেওয়া হোক।

প্রয়োজনে স্বাস্থ্যবিধি মান্য করার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে কীভাবে শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা যায় সে বিষয়ে উলামায়ে কেরামের সঙ্গে সমন্বয় করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করার করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


আলেমদের গ্রেফতারের নিন্দা জানালেন শফীপুত্র আনাস মাদানী

 যুগান্তর ডেস্ক 
২০ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আলেমদের গ্রেফতারের নিন্দা জানালেন শফীপুত্র আনাস মাদানী
আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহ এর আমির মাওলানা আনাস মাদানী।

পবিত্র রমজানে সারাদেশে আলেম, শিক্ষক ও মাদ্রাসা ছাত্রদের গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়েছেন আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহ এর আমির মাওলানা আনাস মাদানী।  

তিনি বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে বিচারের নামে নিরপরাধ কাউকে যেন অযথা হয়রানির শিকার না হতে হয় এ বিষয়ে সরকারকে  সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। প্রকৃত দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হোক, এটা আমাদেরও দাবি।

সোমবার রাতে আঞ্জুমানে দাওয়াতে ইসলাহ বাংলাদেশের দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ সালমান স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এসব দাবি করে আল্লামা আহমদ শফীর ছেলে। 

বিবৃতিতে মাওলানা আনাস মাদানী বলেন, আব্বাজান শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) ছিলেন এদেশের কওমি মাদ্রাসা জন্য আল্লাহর বিশেষ রহমত স্বরূপ। তিনি সবসময় ইসলাম ও মুসলমানের কল্যাণের কথা ভেবেছেন। সকল দল ও মতের মানুষের সঙ্গে সম্মানজনক সম্পর্ক বজায় রেখে চলছেন। 

ইসলামি শিক্ষা তাহজিব ও তমদ্দুনকে সবর্স্তরের জনসাধারণের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে এদেশের কওমি মাদ্রাসাগুলোর যে বৃহৎ অবদান রয়েছে তাকে সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সঠিকভাবে উপস্থাপন করায় তার অবদান অনস্বীকার্য। 

একই সঙ্গে মাওলানা মাদানী সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন, লকডাউনের মধ্যেও কওমি মাদ্রাসার শিক্ষাপদ্ধতির প্রতি সুবিচার করে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় হলেও মাদরাসাগুলোকে অতি দ্রুত খুলে দেওয়া হোক। 

প্রয়োজনে স্বাস্থ্যবিধি মান্য করার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে কীভাবে শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা যায় সে বিষয়ে উলামায়ে কেরামের সঙ্গে সমন্বয় করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করার করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।   


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন