করোনার এ সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে: অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি
jugantor
করোনার এ সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে: অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি

  যুগান্তর প্রতিবেদন, নবাবগঞ্জ  

০৯ মে ২০২১, ২২:৪৪:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান, সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেছেন, সমগ্র পৃথিবীতে করোনাভাইরাস এখন মানুষের মাঝে এক আতঙ্কের নাম। এ সময় লকডাউনজনিত কারণে অনেকের আয়ের পথ বন্ধ। দরিদ্র অসহায় মানুষগুলো এখন দিশেহারা।

তিনি বলেন, পরিবার-পরিজন নিয়ে দুশ্চিন্তায় রাত-দিন কাটাচ্ছেন অনেকেই। তাই করোনার এ সময়ে সমাজের বিত্তবান শ্রেণিকে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাদের বিভিন্নভাবে সহায়তা করতে হবে।

রোববার ঢাকার দোহার উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মাধ্যমে শাড়ি কাপড় বিতরণকালে উপস্থিত জনসাধারণের কাছে পাঠানো এক লিখিত বার্তায় সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এসব কথা বলেন।

এ দিন অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির পক্ষে দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতারা উপজেলার নয়াবাড়ি, কুসুমহাটি, রায়পাড়া সুতারপাড়া, নারিশা, মুকসুদপুর, মাহমুদপুর, বিলাশপুর ও দোহার জয়পাড়া পৌরসভা এলাকায় প্রায় ৬ হাজার মানুষের মাঝে ঈদুল ফিতরের উপহার হিসেবে শাড়ি কাপড় বিতরণ করেন।

এমপি সালমা ইসলাম তার পাঠানো বার্তায় বলেন, বিগত সময়ে আপনারা দোহারের জনসাধারণ আমার পাশে ছিলেন। আপনারা আমাকে সহযোগিতা করেছেন। এজন্য আপনাদের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। আগামী দিনেও আপনাদের সহযোগিতা ও ভালোবাসা পাব- এই বিশ্বাস ও আস্থা আমার রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রিয় দোহারবাসী, প্রতি বছর রমজান মাসের শেষের দিকে আপনাদের সঙ্গে আমার দেখা হয়, কথা হয়। এবারো ইচ্ছা ছিল আপনাদের সঙ্গে মতবিনিময় করার। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে আসতে পারলাম না। করোনার সংক্রমণ থেকে আপনারা সবাই সাবধান থাকবেন। সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।

অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেন, আপনাদের প্রিয় মানুষ বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম আজ আমাদের মাঝে নেই। তার জন্য ও আমার পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া করবেন। আপনাদের জন্য শুভ কামনা ও ঈদুল ফিতরের অগ্রিম শুভেচ্ছা রইল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ, আব্দুল আলীম, হায়দার বেপারী, বশির আহমেদ, আফজাল শিকদার, শহীদুল ইসলাম, নাজিম উদ্দীন, ডা. তরুণ, হায়াত আলী, জসিম উদ্দিন পান্নু, মো. শহীদ, শামীম হোসেন, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

করোনার এ সময়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে: অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি

 যুগান্তর প্রতিবেদন, নবাবগঞ্জ 
০৯ মে ২০২১, ১০:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান, সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেছেন, সমগ্র পৃথিবীতে করোনাভাইরাস এখন মানুষের মাঝে এক আতঙ্কের নাম। এ সময় লকডাউনজনিত কারণে অনেকের আয়ের পথ বন্ধ। দরিদ্র অসহায় মানুষগুলো এখন দিশেহারা।

তিনি বলেন, পরিবার-পরিজন নিয়ে দুশ্চিন্তায় রাত-দিন কাটাচ্ছেন অনেকেই। তাই করোনার এ সময়ে সমাজের বিত্তবান শ্রেণিকে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাদের বিভিন্নভাবে সহায়তা করতে হবে।

রোববার ঢাকার দোহার উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের মাধ্যমে শাড়ি কাপড় বিতরণকালে উপস্থিত জনসাধারণের কাছে পাঠানো এক লিখিত বার্তায় সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এসব কথা বলেন।

এ দিন অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির পক্ষে দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতারা উপজেলার নয়াবাড়ি, কুসুমহাটি, রায়পাড়া সুতারপাড়া, নারিশা, মুকসুদপুর, মাহমুদপুর, বিলাশপুর ও দোহার জয়পাড়া পৌরসভা এলাকায় প্রায় ৬ হাজার মানুষের মাঝে ঈদুল ফিতরের উপহার হিসেবে শাড়ি কাপড় বিতরণ করেন।

এমপি সালমা ইসলাম তার পাঠানো বার্তায় বলেন, বিগত সময়ে আপনারা দোহারের জনসাধারণ আমার পাশে ছিলেন। আপনারা আমাকে সহযোগিতা করেছেন। এজন্য আপনাদের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ। আগামী দিনেও আপনাদের সহযোগিতা ও ভালোবাসা পাব- এই বিশ্বাস ও আস্থা আমার রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রিয় দোহারবাসী, প্রতি বছর রমজান মাসের শেষের দিকে আপনাদের সঙ্গে আমার দেখা হয়, কথা হয়। এবারো ইচ্ছা ছিল আপনাদের সঙ্গে মতবিনিময় করার। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে আসতে পারলাম না। করোনার সংক্রমণ থেকে আপনারা সবাই সাবধান থাকবেন। সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।

অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি বলেন, আপনাদের প্রিয় মানুষ বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম আজ আমাদের মাঝে নেই। তার জন্য ও আমার পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া করবেন। আপনাদের জন্য শুভ কামনা ও ঈদুল ফিতরের অগ্রিম শুভেচ্ছা রইল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ, আব্দুল আলীম, হায়দার বেপারী, বশির আহমেদ, আফজাল শিকদার, শহীদুল ইসলাম, নাজিম উদ্দীন, ডা. তরুণ, হায়াত আলী, জসিম উদ্দিন পান্নু, মো. শহীদ, শামীম হোসেন, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস