ঈদে রিজভী-ইলিয়াসের বাসায় গয়েশ্বর
jugantor
ঈদে রিজভী-ইলিয়াসের বাসায় গয়েশ্বর

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৫ মে ২০২১, ১১:৫৯:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিন কোভিডে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সম্প্রতি করোনামুক্ত হয়ে হাসপাতালের ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন। ঈদের দিন রিজভীর খোঁজ নিতে ও তার প্র্রতি সহমর্মিতা জানাতে বাসায় যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

শুক্রবার দুপুরে মোহাম্মদপুরে রিজভীর বাসায় দেখতে যান গয়েশ্বর।

এরপর তিনি নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর পরিবারের খোঁজ-খবর নিতে তাদের বনানীর বাসায় যান। দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালও ওই বাসায় গিয়েছিলেন।

গয়েশ্বর রায় বলেন, ঈদের দিন বলেই রিজভী এবং ইলিয়াস আলীর পরিবারের খোঁজ-খবর নিতে তাদের বাসায় গিয়েছিলাম।

বিএনপির রাজনীতিতে রিজভী ও ইলিয়াস আলী ত্যাগী নেতা হিসেবে পরিচিত। ছাত্রদলের এক কমিটিতে রিজভী সভাপতি এবং ইলিয়াস সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পরে দুজন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে আসেন।

ইলিয়াস আলী গুম হয়েছেন। তিনি জীবিত কিনা জানে না পরিবার।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের বাসায় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, রুহুল আলম চৌধুরীর বাসায় ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন চৌধুরী, মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আহসানুল্লাহ হাসানের বাসায় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, নিখোঁজ তরিকুল ইসলাম ঝন্টুর বাসায় ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, চৌধুরী আলমের বাসায় যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, কারাবন্দি ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইছহাক সরকারের বাসায় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, নিখোঁজ সাজেদুল ইসলাম ও জাহেদুল করীম তানভীরের বাসায় যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, জাকির হোসেন সিদ্দিকীর বাসায় যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, নুরউদ্দিন জনি, মাহবুবুল হক সুজনের বাসায় মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, পুরনো ঢাকায় মো. সোহেল, সম্রাট মোল্লার বাসায় যান ঢাকা দক্ষিণে গত নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন।

ঈদে রিজভী-ইলিয়াসের বাসায় গয়েশ্বর

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৫ মে ২০২১, ১১:৫৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

দীর্ঘদিন কোভিডে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। সম্প্রতি করোনামুক্ত হয়ে হাসপাতালের ছাড়পত্র নিয়ে বাসায় ফিরেছেন। ঈদের দিন রিজভীর খোঁজ নিতে ও তার প্র্রতি সহমর্মিতা জানাতে বাসায় যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

শুক্রবার দুপুরে মোহাম্মদপুরে রিজভীর বাসায় দেখতে যান গয়েশ্বর।

এরপর তিনি নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর পরিবারের খোঁজ-খবর নিতে তাদের বনানীর বাসায় যান। দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালও ওই বাসায় গিয়েছিলেন।

গয়েশ্বর রায় বলেন, ঈদের দিন বলেই রিজভী এবং ইলিয়াস আলীর পরিবারের খোঁজ-খবর নিতে তাদের বাসায় গিয়েছিলাম।

বিএনপির রাজনীতিতে রিজভী ও ইলিয়াস আলী ত্যাগী নেতা হিসেবে পরিচিত। ছাত্রদলের এক কমিটিতে রিজভী সভাপতি এবং ইলিয়াস সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পরে দুজন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে আসেন। 

ইলিয়াস আলী গুম হয়েছেন। তিনি জীবিত কিনা জানে না পরিবার।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফের বাসায় স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, রুহুল আলম চৌধুরীর বাসায় ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন চৌধুরী, মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক আহসানুল্লাহ হাসানের বাসায় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, নিখোঁজ তরিকুল ইসলাম ঝন্টুর বাসায় ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, চৌধুরী আলমের বাসায় যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, কারাবন্দি ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইছহাক সরকারের বাসায় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, নিখোঁজ সাজেদুল ইসলাম ও জাহেদুল করীম তানভীরের বাসায় যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব, জাকির হোসেন সিদ্দিকীর বাসায় যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, নুরউদ্দিন জনি, মাহবুবুল হক সুজনের বাসায় মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, পুরনো ঢাকায় মো. সোহেল, সম্রাট মোল্লার বাসায় যান ঢাকা দক্ষিণে গত নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন