এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে ভোট না রাখার দাবি জাতীয় পার্টির
jugantor
এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে ভোট না রাখার দাবি জাতীয় পার্টির

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৮ জুন ২০২১, ১৪:১১:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী আর তিন আসনে উপনির্বাচনের দিন মিলে যাওয়ায় ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছে জাতীয় পার্টি।

মঙ্গলবার দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু প্রধান নির্বাচন কশিনারের কাছে এক স্মারকলিপিতে এই দাবি জানিয়েছেন।

আগামী ১৪ জুলাই সিলেট-৩, ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ আসনে উপনির্বাচনের তারিখ রেখে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

২০১৯ সালের ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ মারা যান।

২০২০ সালের ১৪ জুলাই বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসরে উপনির্বাচন হয়েছিল। সে সময়ও দলটি তারিখ পরিবর্তনের দাবি তুলেছিল, তবে তাতে সাড়া দেয়নি ইসি।

জাতীয় পার্টির স্মারকলিপিতে বলা হয়, ‘পল্লীবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে এবারও ভোটের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে দলের কর্মী সমর্থকসহ সারা দেশের এরশাদভক্তরা কষ্ট পাচ্ছেন। … এরশাদ শুধু একজন ব্যক্তি নন, একটি প্রতিষ্ঠান। জাতীয় পার্টি সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছে। এ অবস্থায় এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে উপনির্বাচন খুবই দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক।’

সেজন্য ১৪ জুলাই উপ নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করে অন্য যে কোনো দিন ভোট করার দাবি জানানো হয় স্মারকলিপিতে।

জাতীয় পার্টির একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে সিইসির কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার পর বাবলু সাংবাদিকদের বলেন, ‘সিইসিসহ অন্যান্য যারা ছিলেন, তারা আমাদের কথা অত্যন্ত মনোযোগ সহকারে শুনেছেন।… তিনি (সিইসি) বলেছেন- আমি একা কিছু করতে পারব না। পুরো কমিশন বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা বসে আপনাদের পরে এ বিষয়ে জানাব।’

এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে ভোট না রাখার দাবি জাতীয় পার্টির

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৮ জুন ২০২১, ০২:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকী আর তিন আসনে উপনির্বাচনের দিন মিলে যাওয়ায় ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছে জাতীয় পার্টি।

মঙ্গলবার দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু প্রধান নির্বাচন কশিনারের কাছে এক স্মারকলিপিতে এই দাবি জানিয়েছেন। 

আগামী ১৪ জুলাই সিলেট-৩, ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ আসনে উপনির্বাচনের তারিখ রেখে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

২০১৯ সালের ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ মারা যান। 

২০২০ সালের ১৪ জুলাই বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসরে উপনির্বাচন হয়েছিল। সে সময়ও দলটি তারিখ পরিবর্তনের দাবি তুলেছিল, তবে তাতে সাড়া দেয়নি ইসি।

জাতীয় পার্টির স্মারকলিপিতে বলা হয়, ‘পল্লীবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে এবারও ভোটের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে দলের কর্মী সমর্থকসহ সারা দেশের এরশাদভক্তরা কষ্ট পাচ্ছেন। … এরশাদ শুধু একজন ব্যক্তি নন, একটি প্রতিষ্ঠান। জাতীয় পার্টি সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করছে। এ অবস্থায় এরশাদের মৃত্যুবার্ষিকীতে উপনির্বাচন খুবই দুঃখজনক ও বেদনাদায়ক।’

সেজন্য ১৪ জুলাই উপ নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করে অন্য যে কোনো দিন ভোট করার দাবি জানানো হয় স্মারকলিপিতে।

জাতীয় পার্টির একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে সিইসির কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার পর বাবলু সাংবাদিকদের বলেন, ‘সিইসিসহ অন্যান্য যারা ছিলেন, তারা আমাদের কথা অত্যন্ত মনোযোগ সহকারে শুনেছেন।… তিনি (সিইসি) বলেছেন- আমি একা কিছু করতে পারব না। পুরো কমিশন বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা বসে আপনাদের পরে এ বিষয়ে জানাব।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন