কল্যাণ পার্টির যোগদান অনুষ্ঠান পণ্ড
jugantor
কল্যাণ পার্টির যোগদান অনুষ্ঠান পণ্ড

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৬:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল কল্যাণ পার্টির যোগদান অনুষ্ঠান পণ্ড হয়েছে।

শনিবার এই অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে জামায়াতের সংস্কারপন্থি নেতাদের গড়া এবি পার্টি থেকে শতাধিক নেতাকর্মী কল্যাণ পার্টিতে যোগদানের কথা ছিল।

কল্যাণ পার্টির দপ্তর সম্পাদক আল আমিন ভূঁইয়া রিপন জানান, বিকাল সাড়ে ৩ টায় রাজধানীর উত্তরায় ফুগল রেস্টুরেন্ট ও পার্টি সেন্টারে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তর কমিটির উদ্যোগে গণযোগদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টি থেকে কল্যাণপার্টিতে শতাধিক নেতাকর্মীর যোগদানের কথা ছিল। এই অনুষ্ঠানের জন্য পুলিশের অনুমতি নেওয়া হয়েছিল। তারপরও পুলিশ তাদের অনুষ্ঠানে বাধা দেয় এবং হল রুমের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেয়।

ঘটনার পর রাতে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, এই অনুষ্ঠানের বিষয়ে পুলিশকে আগেই জানানো হয়েছিল। অনুমতিও নেওয়া হয়েছিল। তারপরও এই ধরনের বাধা দেওয়া অগণতান্ত্রিক আচরণের বহিঃপ্রকাশ।

এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর এবি পার্টি থেকে গণপদত্যাগ করে দলটির শীর্ষ স্থানীয় নেতাসহ জেলা ও মহানগরীর ২০ নেতা-কর্মী সৈয়দ মুহম্মাদ ইবরাহিমের হাতে ফুল দিয়ে কল্যাণ পার্টিতে যোগদান করেন।

কল্যাণ পার্টির যোগদান অনুষ্ঠান পণ্ড

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল কল্যাণ পার্টির যোগদান অনুষ্ঠান পণ্ড হয়েছে। 

শনিবার এই অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে জামায়াতের সংস্কারপন্থি নেতাদের গড়া এবি পার্টি থেকে শতাধিক নেতাকর্মী কল্যাণ পার্টিতে যোগদানের কথা ছিল। 

কল্যাণ পার্টির দপ্তর সম্পাদক আল আমিন ভূঁইয়া রিপন জানান, বিকাল সাড়ে ৩ টায় রাজধানীর উত্তরায় ফুগল রেস্টুরেন্ট ও পার্টি সেন্টারে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তর কমিটির উদ্যোগে গণযোগদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টি থেকে কল্যাণপার্টিতে শতাধিক নেতাকর্মীর যোগদানের কথা ছিল। এই অনুষ্ঠানের জন্য পুলিশের অনুমতি নেওয়া হয়েছিল। তারপরও পুলিশ তাদের অনুষ্ঠানে বাধা দেয় এবং হল রুমের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে দেয়। 

ঘটনার পর রাতে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, এই অনুষ্ঠানের বিষয়ে পুলিশকে আগেই জানানো হয়েছিল। অনুমতিও নেওয়া হয়েছিল। তারপরও এই ধরনের বাধা দেওয়া অগণতান্ত্রিক আচরণের বহিঃপ্রকাশ। 

এর আগে গত ১০ সেপ্টেম্বর এবি পার্টি থেকে গণপদত্যাগ করে দলটির শীর্ষ স্থানীয় নেতাসহ জেলা ও মহানগরীর ২০ নেতা-কর্মী সৈয়দ মুহম্মাদ ইবরাহিমের হাতে ফুল দিয়ে কল্যাণ পার্টিতে যোগদান করেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন