মনোনয়নপত্র জমা দিলেন শেরিফা কাদের
jugantor
মনোনয়নপত্র জমা দিলেন শেরিফা কাদের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৪ অক্টোবর ২০২১, ২১:০৯:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

শেরিফা কাদের

জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের শূন্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির আহ্বায়ক শেরিফা কাদের।

বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ে গিয়ে এ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেমের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি।

মনোনয়নপত্র পাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে মো. আবুল কাশেম যুগান্তরকে বলেন, প্রার্থী নিজেই এসে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১৮ অক্টোবর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামী ২৩ অক্টোবর। ওই সময়ের মধ্যে তিনি প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে ২৪ অক্টোবর তাকে জয়ী ঘোষণা করা হবে।

জাপার নেত্রী ও সংসদ সদস্য অধ্যাপক মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী গত ১৩ সেপ্টেম্বর মারা গেলে সংসদে নারীদের জন্য সংরক্ষিত এ আসনটি শূন্য হয়। নিয়ম অনুযায়ী, উপ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি-জাপার প্রার্থীই সেখান থেকে নির্বাচিত হবেন। বাংলাদেশের সংবিধানের নিয়মে দল মনোনীত একক প্রার্থীরাই প্রতিটি সংরক্ষিত আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ফলে শেরিফা কাদেরের এমপি হওয়া এখন কেবল সময়ের ব্যাপার।

মনোনয়নপত্র জমা দিলেন শেরিফা কাদের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শেরিফা কাদের
শেরিফা কাদের। ফাইল ছবি

জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের শূন্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির আহ্বায়ক শেরিফা কাদের। 

বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ে গিয়ে এ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেমের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। 

মনোনয়নপত্র পাওয়ার বিষয়টি জানিয়ে মো. আবুল কাশেম যুগান্তরকে বলেন, প্রার্থী নিজেই এসে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আগামী ১৮ অক্টোবর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামী ২৩ অক্টোবর। ওই সময়ের মধ্যে তিনি প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে ২৪ অক্টোবর তাকে জয়ী ঘোষণা করা হবে।

জাপার নেত্রী ও সংসদ সদস্য অধ্যাপক মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী গত ১৩ সেপ্টেম্বর মারা গেলে সংসদে নারীদের জন্য সংরক্ষিত এ আসনটি শূন্য হয়। নিয়ম অনুযায়ী, উপ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি-জাপার প্রার্থীই সেখান থেকে নির্বাচিত হবেন। বাংলাদেশের সংবিধানের নিয়মে দল মনোনীত একক প্রার্থীরাই প্রতিটি সংরক্ষিত আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ফলে শেরিফা কাদেরের এমপি হওয়া এখন কেবল সময়ের ব্যাপার।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর