‘আ. লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই’
jugantor
‘আ. লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই’

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৫:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

‘আ. লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই’

সরকার পরিবর্তন এখন জনগনের দাবি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নেই।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক সম্প্রীতি সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই দেশে সরকার পরিবর্তন এখন জনগনের দাবি। আওয়ামী লীগের আর ক্ষমতায় থাকার কোনো অধিকার নাই। তারা কোনো সমস্যারই সমাধান করতে পারেনি। তারা আজকে সাম্প্রদায়িক দাঙা তৈরি করে, তারা আজকে মানুষের অধিকার ব্যাহত করে, তারা আজকে জনমানুষের জীবনকে দূর্বিষহ করে তুলেছে। তাই বলব, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। পদত্যাগ করে একটা নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করে একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় একটা নতুন নির্বাচন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দিন যাতে সবাই ভোট দিতে পারে, ভোটের মাধ্যমে তারা তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করতে পারে।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে জাতীয় প্রেসক্লাব অভিমুখে সম্প্রীতি শোভাযাত্রা হওয়ার কথা থাকলেও সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করার কারণে ছোট ট্রাকে অস্থায়ী মঞ্চে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব।

এর আগে মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে আমরা একটা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে একটা র্যা লির মাধ্যমে সরকার যে পরিকল্পিতভাবে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করছে তার প্রতিবাদ জানাতে শান্তিপূর্ণ র্যা লি করে জাতীয় প্রেসক্লাব পর্যন্ত যাব। আমরা চিঠিও দিয়েছিলাম আগে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে আজকে সকাল থেকে আমাদের নেতা-কর্মীদের এখানে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের এখন সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করতে হচ্ছে।

প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে দলের মহানগর উত্তরের আহবায়ক আমানউল্লাহ আমান, দক্ষিনের আহবায়ক আবদুস সালাম বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, দলের নেতা—মীর সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

‘আ. লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই’

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘আ. লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নাই’
ছবি: সংগৃহীত

সরকার পরিবর্তন এখন জনগনের দাবি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ক্ষমতায় থাকার আর কোনো অধিকার নেই।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক সম্প্রীতি সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই দেশে সরকার পরিবর্তন এখন জনগনের দাবি। আওয়ামী লীগের আর ক্ষমতায় থাকার কোনো অধিকার নাই। তারা কোনো সমস্যারই সমাধান করতে পারেনি। তারা আজকে সাম্প্রদায়িক দাঙা তৈরি করে, তারা আজকে মানুষের অধিকার ব্যাহত করে, তারা আজকে জনমানুষের জীবনকে দূর্বিষহ করে তুলেছে। তাই বলব, অবিলম্বে পদত্যাগ করুন। পদত্যাগ করে একটা নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করে একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় একটা নতুন নির্বাচন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দিন যাতে সবাই ভোট দিতে পারে, ভোটের মাধ্যমে তারা তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করতে পারে।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বেলা ১১টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে জাতীয় প্রেসক্লাব অভিমুখে সম্প্রীতি শোভাযাত্রা হওয়ার কথা থাকলেও সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করার কারণে ছোট ট্রাকে অস্থায়ী মঞ্চে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে কর্মসূচির সমাপ্তি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব।

এর আগে মির্জা ফখরুল বলেন,  আজকে আমরা একটা সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে একটা র্যা লির মাধ্যমে সরকার যে পরিকল্পিতভাবে সম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করছে তার প্রতিবাদ জানাতে শান্তিপূর্ণ র্যা লি করে জাতীয় প্রেসক্লাব পর্যন্ত যাব। আমরা চিঠিও দিয়েছিলাম আগে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে আজকে সকাল থেকে আমাদের নেতা-কর্মীদের এখানে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের এখন সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করতে হচ্ছে।

প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে দলের মহানগর উত্তরের আহবায়ক আমানউল্লাহ আমান, দক্ষিনের আহবায়ক আবদুস সালাম বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, দলের নেতা—মীর সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ প্রমুখ বক্তব্য দেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন