রেজা কিবরিয়া ও নুরের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন
jugantor
রেজা কিবরিয়া ও নুরের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৫৮:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

রেজা কিবরিয়া ও নুরুহ হক নুর

নতুন রাজনৈতিক দল গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া ও সদস্যসচিব নুরুল হকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করা হয়েছে।

বুধবার বিকালে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন শাহবাগ থানায় এ আবেদন করেন। তবে মামলার আবেদনটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করেছে পুলিশ। মামলার আবেদনে রেজা কিবরিয়া ও নুরুল হক ছাড়াও যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানের নাম রয়েছে।

মামলার আবেদনে সাম্প্রদায়িক হামলার নির্দেশ ও এতে মদদদানের অভিযোগ আনা হয়।

গণ অধিকার পরিষদের সদস্যসচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর একটি গণমাধ্যমকে বলেন, এ মামলার আবেদন নিয়ে আমরা মোটেও বিচলিত নই। মামলাটি রাজনৈতিকভাবে দেখার হলে রাজনৈতিকভাবে, আইনগতভাবে দেখার হলে আইনগতভাবে দেখব।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মওদূত হাওলাদার একটি গণমাধ্যমকে বলেন, পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী, এটা সাইবার ক্রাইম ডিভিশনে যাবে। তারা যাচাই-বাছাই করে মতামত দেওয়ার পর মামলা নেওয়ার মতো হলে আমরা মামলা নেব।

রেজা কিবরিয়া ও নুরের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রেজা কিবরিয়া ও নুরুহ হক নুর
ফাইল ছবি

নতুন রাজনৈতিক দল গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক রেজা কিবরিয়া ও সদস্যসচিব নুরুল হকসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করা হয়েছে। 

বুধবার বিকালে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন শাহবাগ থানায় এ আবেদন করেন। তবে মামলার আবেদনটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করেছে পুলিশ। মামলার আবেদনে রেজা কিবরিয়া ও নুরুল হক ছাড়াও যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক তারেক রহমানের নাম রয়েছে। 

মামলার আবেদনে সাম্প্রদায়িক হামলার নির্দেশ ও এতে মদদদানের অভিযোগ আনা হয়। 

গণ অধিকার পরিষদের সদস্যসচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর একটি গণমাধ্যমকে বলেন, এ মামলার আবেদন নিয়ে আমরা মোটেও বিচলিত নই। মামলাটি রাজনৈতিকভাবে দেখার হলে রাজনৈতিকভাবে, আইনগতভাবে দেখার হলে আইনগতভাবে দেখব। 

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মওদূত হাওলাদার একটি গণমাধ্যমকে বলেন, পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী, এটা সাইবার ক্রাইম ডিভিশনে যাবে। তারা যাচাই-বাছাই করে মতামত দেওয়ার পর মামলা নেওয়ার মতো হলে আমরা মামলা নেব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন