হেফাজত মহাসচিব নুরুল ইসলাম আর নেই
jugantor
হেফাজত মহাসচিব নুরুল ইসলাম আর নেই

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪২:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

হেফাজত মহাসচিব নূরুল ইসলাম আর নেই

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের আমির আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী আর নেই। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। নুরুল ইসলামের বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে তার ছেলে খালেদ বিন নূর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে শনিবার রাতে গুরুতর অসুস্থ হলে নুরুল ইসলামকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রের (আইসিইউ) লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে নুরুল ইসলাম জিহাদী স্ট্রোক করেন বলে জানান তার ছেলে মাওলানা রাশেদ বিন নূর।
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মাগরিব নামাজের পর ওলামা মাশায়েখদের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন। রাতে খিলগাঁওয়ের বাসায় ফেরার পথে তিনি স্ট্রোক করেন।

গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর হেফাজত ইসলামের মহাসচিব নুর হোসাইন কাসেমী মারা যাওয়ার পর ২৩ ডিসেম্বর নুরুল ইসলাম জিহাদীকে সংগঠনটির দ্বিতীয় শীর্ষস্থানীয় পদ মহাসচিবের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তখন হেফাজতের আমির ছিলেন জুনায়েদ বাবুনগরী। গত ১৯ আগস্ট তিনি মারা যাওয়ার পর এখন তার মামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী আমিরের দায়িত্ব পালন করছেন।

হেফাজত মহাসচিব নুরুল ইসলাম আর নেই

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৯ নভেম্বর ২০২১, ১২:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হেফাজত মহাসচিব নূরুল ইসলাম আর নেই
ফাইল ছবি

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের আমির আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদী আর নেই। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। নুরুল ইসলামের বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

সোমবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে তার ছেলে খালেদ বিন নূর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে শনিবার রাতে গুরুতর অসুস্থ হলে নুরুল ইসলামকে রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রের (আইসিইউ) লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে নুরুল ইসলাম জিহাদী স্ট্রোক করেন বলে জানান তার ছেলে মাওলানা রাশেদ বিন নূর।
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মাগরিব নামাজের পর ওলামা মাশায়েখদের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেন। রাতে খিলগাঁওয়ের বাসায় ফেরার পথে তিনি স্ট্রোক করেন। 

গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর হেফাজত ইসলামের মহাসচিব নুর হোসাইন কাসেমী মারা যাওয়ার পর ২৩ ডিসেম্বর নুরুল ইসলাম জিহাদীকে সংগঠনটির দ্বিতীয় শীর্ষস্থানীয় পদ মহাসচিবের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তখন হেফাজতের আমির ছিলেন জুনায়েদ বাবুনগরী। গত ১৯ আগস্ট তিনি মারা যাওয়ার পর এখন তার মামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরী আমিরের দায়িত্ব পালন করছেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন