তারা খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে: ফখরুল
jugantor
তারা খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে: ফখরুল

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৪:৫৩:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

সরকারকে দোষারোপ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।

সরকারকে দোষারোপ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি ও বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবিতে বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহিলা দল আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, তারা আজ গণতন্ত্রের মূলকণ্ঠ খালেদা জিয়াকে স্তব্ধ করে দিতে চায়। তাকে তারা কথা বলতে দিতে চায় না। তাকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।’

দেশে নারী শিক্ষা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে খালেদা জিয়ার অবদানের কথা উল্লেখ করেন ফখরুল। তিনি বলেন, তার সময়েই নারীরা ক্ষমতায়তনের সবচেয়ে বড় সুযোগ পেয়েছে। তিনি সবাইকে বাকস্বাধীনতা দিয়েছিলেন।

মহিলা দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এখানে দাঁড়িয়ে কথা বললে হবে না, ঘরে ঘরে গিয়ে মা-বোনকে জাগিয়ে তুলতে হবে। সব মানুষকে একত্রিত করতে হবে, সংঘবদ্ধ করতে হবে।’ গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার মৌন মিছিলেও ভয় পায়। আজকে এখানে মৌন মিছিলও করতে দেওয়া হয়নি।

জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

তারা খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে: ফখরুল

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সরকারকে দোষারোপ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।
ছবি: সংগৃহীত

সরকারকে দোষারোপ করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি ও বিদেশে নিয়ে চিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবিতে বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহিলা দল আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি। 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, তারা আজ গণতন্ত্রের মূলকণ্ঠ খালেদা জিয়াকে স্তব্ধ করে দিতে চায়। তাকে তারা কথা বলতে দিতে চায় না। তাকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়েছে।’

দেশে নারী শিক্ষা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে খালেদা জিয়ার অবদানের কথা উল্লেখ করেন ফখরুল। তিনি বলেন, তার সময়েই নারীরা ক্ষমতায়তনের সবচেয়ে বড় সুযোগ পেয়েছে। তিনি সবাইকে বাকস্বাধীনতা দিয়েছিলেন।

মহিলা দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এখানে দাঁড়িয়ে কথা বললে হবে না, ঘরে ঘরে গিয়ে মা-বোনকে জাগিয়ে তুলতে হবে। সব মানুষকে একত্রিত করতে হবে, সংঘবদ্ধ করতে হবে।’ গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে, খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এবং তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। 

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার মৌন মিছিলেও ভয় পায়। আজকে এখানে মৌন মিছিলও করতে দেওয়া হয়নি।

জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন