টাঙ্গাইল-৭ আসনে নৌকার বিজয়
jugantor
টাঙ্গাইল-৭ আসনে নৌকার বিজয়

  মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২১:২৯:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) সংসদীয় শূন্য আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও টাঙ্গাইল জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি এবং এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক খান আহমেদ শুভ বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন।

রোববার সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিনে (ইভিএমএ) ভোটগ্রহণ চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়নে মোট ভোটার তিন লাখ ৪০ হাজার ৩৭৮ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৭০ হাজার ৫০১ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৬৯ হাজার ৮৭৭ জন।

রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, পাঁচজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। আওয়ামী লীগের খান আহমেদ শুভ (নৌকা) ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯ ভোট, জাতীয় পার্টির মো. জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙ্গল) ১৬ হাজার ৭৭৩ ভোট, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মো. গোলাম নওজব পাওয়ার চৌধুরী (হাতুড়ি) ১ হাজার ৪৫ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নুরুল ইসলাম নুরু (মোটর গাড়ি) ২ হাজার ৪৩৬ ভোট এবং বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির প্রার্থী শ্রী মতি রুপা রায় চৌধুরী (ডাব) ৪৩৮ ভোট পেয়েছেন।

নির্বাচন কমিশনের ময়মনসিংহ আঞ্চলিক অফিসের কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুননবী চৌধুরী বলেন, টাঙ্গাইল-৭ মির্জাপুর উপনির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে।

নৌকার প্রার্থী বিজয়ী হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন- টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একুশে পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান খান ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম এমপি, টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র জামিলুর রহমান মিরন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল।

টাঙ্গাইল-৭ আসনে নৌকার বিজয়

 মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
১৬ জানুয়ারি ২০২২, ০৯:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) সংসদীয় শূন্য আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও টাঙ্গাইল জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি এবং এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক খান আহমেদ শুভ বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী  হয়েছেন।

রোববার সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিনে (ইভিএমএ) ভোটগ্রহণ চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়নে মোট ভোটার তিন লাখ ৪০ হাজার ৩৭৮ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৭০ হাজার ৫০১ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৬৯ হাজার ৮৭৭ জন।

রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, পাঁচজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। আওয়ামী লীগের খান আহমেদ শুভ (নৌকা) ১ লাখ ৪ হাজার ৫৯ ভোট, জাতীয় পার্টির মো. জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙ্গল) ১৬ হাজার ৭৭৩ ভোট, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মো. গোলাম নওজব পাওয়ার চৌধুরী (হাতুড়ি) ১ হাজার ৪৫ ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নুরুল ইসলাম নুরু (মোটর গাড়ি) ২ হাজার ৪৩৬ ভোট এবং বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির প্রার্থী শ্রী মতি রুপা রায় চৌধুরী (ডাব) ৪৩৮ ভোট পেয়েছেন।

নির্বাচন কমিশনের ময়মনসিংহ আঞ্চলিক অফিসের কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুননবী চৌধুরী বলেন, টাঙ্গাইল-৭ মির্জাপুর উপনির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে।

নৌকার প্রার্থী বিজয়ী হওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছেন- টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একুশে পদকপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান খান ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম এমপি, টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র জামিলুর রহমান মিরন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদ ইকবাল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন