দ্রুত শাবির সমস্যা সমাধানের আহবান ড. কামালের
jugantor
দ্রুত শাবির সমস্যা সমাধানের আহবান ড. কামালের

  সিলেট ব্যুরো  

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:২৩:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৃষ্ট সমস্যা দ্রুত সমাধানের আহবান জানিয়েছেন গণফোরামের আহবায়ক ড. কামাল হোসেন।

মঙ্গলবার দুপুরে প্রতিনিধি হিসেবে গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের চিত্র মোবাইল ফোনে অবগত করলে কামাল হোসেন এ কথা বলেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, করোনার সময়ে বন্ধ ছিল বিশ্ববিদ্যালয়। এখন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলেও সৃষ্ট সমস্যায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অচলাবস্থা চলছে। এটি সরকারের পক্ষ থেকে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত।

দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান এমপি। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। তবে শিক্ষার্থীরা কামাল হোসেনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলতে রাজি হননি। বরং রাজনৈতিক কারো সঙ্গে কথা বলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলন বিতর্কিত করতে চান না বলেও জানানো হয় মোকাব্বির খানকে।

এ সময় মোকাব্বির খান সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষার্থী আন্দোলনের ব্যাপারে সরকারকে ভুল তথ্য দেওয়া হচ্ছে। আমি এসে দেখলাম এটি সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন। তারা আমার সঙ্গেও কথা বলতে রাজি হননি। তারা বলেছেন, তারা চান না তাদের এই আন্দোলন কোনোভাবেই রাজনৈতিকভাবে ব্যবহৃত হোক।

এদিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অর্থ দেওয়ার অভিযোগে সাবেক পাঁচ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে সিআইডি। তাদের ঢাকায় আটকের পর নিয়ে আসা হচ্ছে সিলেটে। তবে সিলেটে নিয়ে আসার বিষয়টি নিশ্চিত করলেও কী কারণে আটক করা হয়েছে তা জানাতে পারেননি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার নিশারুল আরিফ।

দ্রুত শাবির সমস্যা সমাধানের আহবান ড. কামালের

 সিলেট ব্যুরো 
২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০৬:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৃষ্ট সমস্যা দ্রুত সমাধানের আহবান জানিয়েছেন গণফোরামের আহবায়ক ড. কামাল হোসেন।

মঙ্গলবার দুপুরে প্রতিনিধি হিসেবে গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সিলেট-২ আসনের সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের চিত্র মোবাইল ফোনে অবগত করলে কামাল হোসেন এ কথা বলেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, করোনার সময়ে বন্ধ ছিল বিশ্ববিদ্যালয়। এখন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলেও সৃষ্ট সমস্যায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অচলাবস্থা চলছে। এটি সরকারের পক্ষ থেকে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত। 

দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান এমপি। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। তবে শিক্ষার্থীরা কামাল হোসেনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলতে রাজি হননি। বরং রাজনৈতিক কারো সঙ্গে কথা বলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের এ আন্দোলন বিতর্কিত করতে চান না বলেও জানানো হয় মোকাব্বির খানকে।

এ সময় মোকাব্বির খান সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষার্থী আন্দোলনের ব্যাপারে সরকারকে ভুল তথ্য দেওয়া হচ্ছে। আমি এসে দেখলাম এটি সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন। তারা আমার সঙ্গেও কথা বলতে রাজি হননি। তারা বলেছেন, তারা চান না তাদের এই আন্দোলন কোনোভাবেই রাজনৈতিকভাবে ব্যবহৃত হোক।

এদিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অর্থ দেওয়ার অভিযোগে সাবেক পাঁচ শিক্ষার্থীকে আটক করেছে সিআইডি। তাদের ঢাকায় আটকের পর নিয়ে আসা হচ্ছে সিলেটে। তবে সিলেটে নিয়ে আসার বিষয়টি নিশ্চিত করলেও কী কারণে আটক করা হয়েছে তা জানাতে পারেননি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার নিশারুল আরিফ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন