মাদকের নামে পাখির মতো মানুষ মারা হচ্ছে : ফখরুল

প্রকাশ : ২৯ মে ২০১৮, ১৪:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে বক্তব্য রাখছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ছবি-সংগৃহীত

মাদকবিরোধী অভিযানের নামে পাখির মতো মানুষ মারা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  

মির্জা ফখরুল বলেন, আজ দেশের মানুষকে মাদকের নামে পাখির মতো গুলি করে মারছে। কারণ তারা পারছে না মাদকের ভয়াবহতা থেকে সমাজ ও দেশকে মুক্ত করতে। কারণ আজ দেশে এক ব্যক্তির শাসন চলছে। কোনো রাজনৈতিক দল বা গণতান্ত্রিক সরকারের শাসন চলছে না।

গত ১৫ দিনে সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযানে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনায় সন্দেহভাজন ১০৬ জন মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ অভিযান এখনও অব্যাহত রয়েছে। 

তিনি বলেন, আজ যে আওয়ামী লীগ কথা বলছে, তাদের নিজেদেরও কথা বলার অধিকার ছিল না। কারণ বাকশাল কায়েম করে তাদেরও রাজনীতির অধিকার ছিল না। জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্রের মাধ্যমে তাদের কথা বলার, রাজনীতি করার অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, তারা দেশের মানুষের সব গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করেছে। আজ আমাদের দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে এবং খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। তার নেতৃত্বে আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি। খালেদা জিয়াকে নিয়ে বিএনপি নির্বাচনে যাবে, তাকে ছাড়া কোনো নির্বাচন হবে না। হতে দেয়া হবে না।

‘আজ আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। দেশের সব গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচন দিতে বাধ্য করতে হবে,’ বলেন তিনি। 

ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের ব্যর্থতা থেকে জিয়াউর রহমানের জন্ম হয়েছে। যখন আওয়ামী লীগ রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যর্থ হয়েছে, তখন জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রক্ষমতায় এসেছে। 

তিনি বলেন, এ দেশের সংবিধানের প্রথম কাটাছেঁড়া করেছে আওয়ামী লীগ। নিজেদের একদলীয় শাসন কায়েম করতে সংবিধান পরিবর্তন করেছে।