ছাত্রদল নেতা সাইফুলকে অবিলম্বে জনসমক্ষে হাজির করুন: মির্জা ফখরুল
jugantor
ছাত্রদল নেতা সাইফুলকে অবিলম্বে জনসমক্ষে হাজির করুন: মির্জা ফখরুল

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৮ জুন ২০২২, ২০:৩৯:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইফকে অবিলম্বে জনসমক্ষে হাজির করার দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করেন, পুলিশের গুলিতে পঙ্গুত্ব বরণকারী চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইফ সোমবার চট্টগ্রাম আদালতে হাজিরা দিতে যান। সেখান থেকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তাকে তুলে নিয়ে যায়, কিন্তু এখনও পর্যন্ত সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ নিয়েও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, সবার নিকট দৃশ্যমান যে, সাইফুল ইসলাম সাইফকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তুলে নিয়ে যায়। সে পুলিশের নিকটই আছে। তাকে এভাবে নিখোঁজ করে রাখায় দলের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী ও তার পরিবার গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। অবিলম্বে সাইফুল ইসলামকে জনসমক্ষে হাজির করার দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি আরও বলেন, এই ঘটনা আতঙ্কজনক। এভাবে আটক ও গুম করে রাখা নির্মম মনুষ্যত্বহীনতা এবং ভয়ানক অশুভ সঙ্কেত। এর আগেও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশ উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে পায়ে অস্ত্র ঠেকিয়ে দুই রাউন্ড গুলি করে। তাতে সাইফুল ইসলাম চিরতরে পঙ্গু হয়ে যায়। আবারো তাকে একই কায়দায় আটক এবং তার কোন সন্ধান না পাওয়া গভীর উদ্বেগজনক।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে সরকার বিরোধী দল ও মতকে দমনে এখন আরও হিংস্র রুপ ধারণ করেছে। স্বৈরাচারী সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের যাঁতাকলে দেশের মানুষ সর্বদা পিষ্ট হচ্ছে। অজানা আতংক আর ভয়াল পরিবেশ মানুষের স্বাভাবিক জীবন-যাপনকে করে তুলেছে বিপর্যস্ত।

এদিকে সাইফুল ইসলাম সাইফের সন্ধান ও জনসম্মুখে হাজিরের দাবি জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল বলেন, দেশপ্রেমে উদ্ভুদ্ধ ছাত্রদলের আদর্শিক রাজনীতির প্রতি সরকার ও তার পেটোয়া বাহিনীর এলার্জি দিন দিন বেড়েই চলেছে। যে সাইফুলকে তারা গত কিছু দিন আগে গুলি করে পঙ্গু বানিয়েছে তাকে এখন আবারো গুম করে চিরতরে গায়েব করে দেওয়ার পায়তারায় লিপ্ত হয়েছে।

ছাত্রদলের দুই শীর্ষ নেতা অচিরেই সাইফুল ইসলামকে জনসম্মুখে হাজির করে গুমের অপচেষ্টা থেকে সরে আসার দাবি জানান। তারা বলেন, অন্যথায় এই চরম বর্বর ও রাষ্ট্র বিরোধী ঘৃণিত অপতৎপরতার বিরুদ্ধে দেশের ছাত্রসমাজকে সঙ্গে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন দানাবাঁধলে ও কোন অপ্রীতিকর কিছু ঘটলে এর পুরোপুরি দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে।

ছাত্রদল নেতা সাইফুলকে অবিলম্বে জনসমক্ষে হাজির করুন: মির্জা ফখরুল

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৮ জুন ২০২২, ০৮:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইফকে অবিলম্বে জনসমক্ষে হাজির করার দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করেন, পুলিশের গুলিতে পঙ্গুত্ব বরণকারী চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইফ সোমবার চট্টগ্রাম আদালতে হাজিরা দিতে যান।  সেখান থেকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তাকে তুলে নিয়ে যায়, কিন্তু এখনও পর্যন্ত সম্ভাব্য সব স্থানে খোঁজ নিয়েও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, সবার নিকট দৃশ্যমান যে, সাইফুল ইসলাম সাইফকে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তুলে নিয়ে যায়। সে পুলিশের নিকটই আছে। তাকে এভাবে নিখোঁজ করে রাখায় দলের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী ও তার পরিবার গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। অবিলম্বে সাইফুল ইসলামকে জনসমক্ষে হাজির করার দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি আরও বলেন, এই ঘটনা আতঙ্কজনক। এভাবে আটক ও গুম করে রাখা নির্মম মনুষ্যত্বহীনতা এবং ভয়ানক অশুভ সঙ্কেত। এর আগেও তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশ উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে পায়ে অস্ত্র ঠেকিয়ে দুই রাউন্ড গুলি করে। তাতে সাইফুল ইসলাম চিরতরে পঙ্গু হয়ে যায়। আবারো তাকে একই কায়দায় আটক এবং তার কোন সন্ধান না পাওয়া গভীর উদ্বেগজনক। 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী দুঃশাসন টিকিয়ে রাখতে সরকার বিরোধী দল ও মতকে দমনে এখন আরও হিংস্র রুপ ধারণ করেছে। স্বৈরাচারী সরকারের ভয়াবহ দুঃশাসনের যাঁতাকলে দেশের মানুষ সর্বদা পিষ্ট হচ্ছে। অজানা আতংক আর ভয়াল পরিবেশ মানুষের স্বাভাবিক জীবন-যাপনকে করে তুলেছে বিপর্যস্ত। 

এদিকে সাইফুল ইসলাম সাইফের সন্ধান ও জনসম্মুখে হাজিরের দাবি জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। 

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল বলেন, দেশপ্রেমে উদ্ভুদ্ধ  ছাত্রদলের আদর্শিক রাজনীতির প্রতি সরকার ও তার পেটোয়া বাহিনীর এলার্জি দিন দিন বেড়েই চলেছে। যে সাইফুলকে তারা গত কিছু দিন আগে গুলি করে পঙ্গু বানিয়েছে তাকে এখন আবারো গুম করে চিরতরে গায়েব করে দেওয়ার পায়তারায় লিপ্ত হয়েছে। 

ছাত্রদলের দুই শীর্ষ নেতা অচিরেই সাইফুল ইসলামকে জনসম্মুখে হাজির করে গুমের অপচেষ্টা থেকে সরে আসার দাবি জানান। তারা বলেন, অন্যথায় এই চরম বর্বর ও রাষ্ট্র বিরোধী ঘৃণিত অপতৎপরতার বিরুদ্ধে দেশের ছাত্রসমাজকে সঙ্গে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন দানাবাঁধলে ও কোন অপ্রীতিকর কিছু ঘটলে এর পুরোপুরি দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর