‘জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামল ছিল এদেশের স্বর্ণযুগ’
jugantor
‘জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামল ছিল এদেশের স্বর্ণযুগ’

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১২ আগস্ট ২০২২, ০০:০১:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামল ছিল এদেশের স্বর্ণযুগ। তাইতো মানুষ আজও জাতীয় পার্টিকেই চাই ও মনে প্রাণে ভালবাসে। অদূর ভবিষতে পুরো ঢাকা জেলার সবকটি আসনেই জাতীয় পার্টি প্রতিনিধিত্ব করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

বৃহস্পতিবার বিকালে বনানী জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির বর্ধিতসভায় বক্তৃতাকালে বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, বাংলার ঘরে ঘরে সালমা ইসলাম দরকার।তার নেতৃত্বাধীন ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টি অনেক শক্তিশালী। সামনে জাতীয় পার্টির উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলার সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে জাতীয় পার্টি অনেক শক্তিশালী হয়েছে।

তারা বলেন, নেতাকর্মীরা আগের যেকোন সময়ের চেয়ে অধিক চাঙা ও উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন। ঢাকা জেলার ৫টি উপজেলা ও ৭টি থানা ও ৩টি পৌরসভা জাতীয় পার্টি বেশ সু-সংগঠিত। অদূর ভবিষ্যতে এ অঞ্চলে জাতীয় পার্টির কোন বিকল্প থাকবেনা।

ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির মহাসচিব মোহাম্মদ মজিবুল হক এমপি।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টি সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের উপদেষ্টা সাবেক সংসদ সদস্য খান মোহাম্মদ ইসলাফিল খোকন
ঢাকা জেলা ছাত্র সমাজের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ আলী, যুব সংহতির সদস্য সচিব দেওয়ান মোহাম্মদ আনিসুর রহমান শাহাজাদা, স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক মো. আবুল হাসনাত আজাদ, দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক ডা.মোহাম্মদ আলাউদ্দিন আলার, নবাবগঞ্জ জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক মো. জুয়েল আহাম্মেদ, কেরানীগঞ্জ জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব মো. লাইজু আহাম্মেদ, ধামরাই উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. আব্দুল মালেক, সাভার উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

‘জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামল ছিল এদেশের স্বর্ণযুগ’

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১২ আগস্ট ২০২২, ১২:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পার্টির ৯ বছরের শাসনামল ছিল এদেশের স্বর্ণযুগ। তাইতো মানুষ আজও জাতীয় পার্টিকেই চাই ও মনে প্রাণে ভালবাসে। অদূর ভবিষতে পুরো ঢাকা জেলার সবকটি আসনেই জাতীয় পার্টি প্রতিনিধিত্ব করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।
 
বৃহস্পতিবার বিকালে বনানী জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত ঢাকা জেলা  জাতীয় পার্টির বর্ধিতসভায় বক্তৃতাকালে বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, বাংলার ঘরে ঘরে সালমা ইসলাম দরকার।তার নেতৃত্বাধীন ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টি অনেক শক্তিশালী। সামনে জাতীয় পার্টির উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে। যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম জাতীয় পার্টির  কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলার সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে জাতীয় পার্টি অনেক শক্তিশালী হয়েছে। 

তারা বলেন, নেতাকর্মীরা আগের যেকোন সময়ের চেয়ে অধিক চাঙা ও উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন। ঢাকা জেলার ৫টি উপজেলা ও ৭টি থানা ও ৩টি পৌরসভা জাতীয় পার্টি বেশ সু-সংগঠিত। অদূর ভবিষ্যতে এ অঞ্চলে জাতীয় পার্টির কোন বিকল্প থাকবেনা। 

ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির মহাসচিব মোহাম্মদ মজিবুল হক এমপি। 

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টি সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের উপদেষ্টা সাবেক সংসদ সদস্য খান মোহাম্মদ ইসলাফিল খোকন 
ঢাকা জেলা ছাত্র সমাজের সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ আলী, যুব সংহতির সদস্য সচিব দেওয়ান মোহাম্মদ আনিসুর রহমান শাহাজাদা, স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক মো. আবুল হাসনাত আজাদ, দোহার উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক ডা.মোহাম্মদ আলাউদ্দিন আলার, নবাবগঞ্জ জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক মো. জুয়েল আহাম্মেদ, কেরানীগঞ্জ জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব মো.  লাইজু আহাম্মেদ, ধামরাই উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. আব্দুল মালেক, সাভার উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন