গুলিতে যুবদল কর্মী শাওন হত্যার প্রতিবাদ গণঅধিকার পরিষদের
jugantor
গুলিতে যুবদল কর্মী শাওন হত্যার প্রতিবাদ গণঅধিকার পরিষদের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:১১:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি এবং দলীয় নেতা-কর্মী হত্যার প্রতিবাদে মুন্সিগঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নেতা-কর্মীদের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে গুলি চালিয়ে যুবদল কর্মী শাওন হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে গণঅধিকার পরিষদ।

গণঅধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া ও সদস্য সচিব নুরুল হক নুর এক যৌথ বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ জানান।

নেতারা বলেন, মুন্সিগঞ্জে রাজনৈতিক দলের শান্তিপূর্ণ, গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে নাগরিকদের ওপর গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার ঘটনায় গণঅধিকার পরিষদ গভীর উদ্বেগের সঙ্গে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। সভা-সমাবেশের মতো সংবিধান স্বীকৃত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে গুলি চালিয়ে পুলিশ মানুষ হত্যা করছে। এই কর্তৃত্ববাদী সরকার তাদের অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে মানুষ হত্যার পৈশাচিক উৎসবে মেতে উঠেছে। গণবিরোধী জনবিচ্ছিন্ন, দুর্নীতিবাজ সরকারের এসব কর্মকাণ্ড দেশকে চরম নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যা দেশকে গভীর সংকটের দিকে ঠেলে দিতে পারে।

নেতারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা চাই ফ্যাসিবাদী সরকারের বেআইনি নির্দেশ পালন থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিরত থাকুক। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুক।একই সঙ্গে জনগণকে সম্মিলিতভাবে বর্তমান মাফিয়া সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণআন্দোলন গড়ে তোলারও আহ্বান জানান তিনি।

নিহত পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ ও সমবেদনা জানিয়েছে গণঅধিকার পরিষদ।

গুলিতে যুবদল কর্মী শাওন হত্যার প্রতিবাদ গণঅধিকার পরিষদের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জ্বালানি তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি এবং দলীয় নেতা-কর্মী হত্যার প্রতিবাদে মুন্সিগঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নেতা-কর্মীদের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে গুলি চালিয়ে যুবদল কর্মী শাওন হত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে গণঅধিকার পরিষদ।

গণঅধিকার পরিষদের আহ্বায়ক ড. রেজা কিবরিয়া ও সদস্য সচিব নুরুল হক নুর এক যৌথ বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ জানান।

নেতারা বলেন, মুন্সিগঞ্জে রাজনৈতিক দলের শান্তিপূর্ণ, গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে নাগরিকদের ওপর গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার ঘটনায় গণঅধিকার পরিষদ গভীর উদ্বেগের সঙ্গে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। সভা-সমাবেশের মতো সংবিধান স্বীকৃত শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে গুলি চালিয়ে পুলিশ মানুষ হত্যা করছে। এই কর্তৃত্ববাদী সরকার তাদের অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে মানুষ হত্যার পৈশাচিক উৎসবে মেতে উঠেছে। গণবিরোধী  জনবিচ্ছিন্ন, দুর্নীতিবাজ সরকারের এসব কর্মকাণ্ড দেশকে চরম নৈরাজ্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যা দেশকে গভীর সংকটের দিকে ঠেলে দিতে পারে।

নেতারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা চাই ফ্যাসিবাদী সরকারের বেআইনি নির্দেশ পালন থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিরত থাকুক। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুক।একই সঙ্গে জনগণকে সম্মিলিতভাবে বর্তমান মাফিয়া সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণআন্দোলন গড়ে তোলারও আহ্বান জানান তিনি।

নিহত পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ ও সমবেদনা জানিয়েছে গণঅধিকার পরিষদ।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন