জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: বাবলা  
jugantor
জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: বাবলা  

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২২ নভেম্বর ২০২২, ২২:০৩:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বাবলা

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি বলেছেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের দেশ ও মানুষের অধিকারের প্রশ্নে সর্বদা সোচ্চার। তিনি দেশ ও মানুষের নেতা। তাই জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে দেশ ও মানুষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

তিনি বলেন, মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে একটি রাজনৈতিক দলের নেতার কণ্ঠ রোধ করার অপচেষ্টা নজিরবিহীন। দেশের মানুষ জিএম কাদেরের কথা শুনতে চায়, দেশের মানুষ তার নেতৃত্ব গ্রহণ করেছে। এতে হতাশ হয়ে দল থেকে বহিষ্কৃত এবং অর্বাচীন কিছু মানুষ জিএম কাদের ও জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে।

সোমবার রাজধানীর বিজয়নগর প্রধান সড়কে পার্টি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এ কথা বলেন।

সমাবেশে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির ভাপতি শেরীফা কাদের এমপি বলেন, জাতীয় পার্টি হচ্ছে সুশৃঙ্খল ও আদর্শবাদী রাজনৈতিক শক্তি। জাতীয় পার্টির শৃঙ্খলা কখনোই দুর্বলতা নয়।

তিনি বলেন, হাজার হাজার মানুষের এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ প্রমাণ করে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী রাজনৈতিক দল। শেরীফা কাদের এ সময় জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নেই, জাতীয় পার্টি জিএম কাদেরের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছে। কোনো ষড়যন্ত্রই জাতীয় পার্টির ঐক্যে ফাটল ধরাতে পারবে না।

পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও অতিরিক্ত মহাসচিব সাহিদুর রহমান টেপা বলেন, রাজনীতিতে হামলা, মামলা ও ষড়যন্ত্র নতুন কিছু নয়। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিরুদ্ধে যে অপশক্তি ষড়যন্ত্র করেছে তারা এখন আবার সক্রিয় হয়েছে। বক্তব্য রাখেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম আব্দুল মান্নান, মীর আবদুস সবুর আসুদ, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম সেন্টু, এটিইউ তাজ রহমান, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, এমরান হোসেন মিয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, জহিরুল ইসলাম জহির, জহিরুল আলম রুবেল, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা হেনা খান প্রমুখ।

যশোরে প্রতিবাদ: যশোর ব্যুরো জানায়, জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকালে দলীয় কার্যালয়ে জেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্যে যশোর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, আমাদের দলের মধ্যে দুই একজন শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে বহিষ্কার হন। সেই বহিষ্কৃৃতরা পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের এমপির নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে সারা দেশের জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের হৃদয়ে আঘাত করেছে। অবিলম্বে এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি। অন্যথায় সারা দেশের মতো যশোর জেলা জাতীয় পার্টি রাজপথে নামতে বাধ্য হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব মুফতি ফিরোজ শাহ্, যুগ্ম আহ্বায়ক মিনহাজুল আরেফিন ও নজরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির নেতা অ্যাডভোকেট আবু মুছা, আক্কাস আলী, মনিরুজ্জামান হিরণ, শফিয়ার রহমান, শফিকুল ইসলাম শফিক প্রমুখ।

জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: বাবলা  

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২২ নভেম্বর ২০২২, ১০:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাবলা
ছবি-যুগান্তর

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি বলেছেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের দেশ ও মানুষের অধিকারের প্রশ্নে সর্বদা সোচ্চার। তিনি দেশ ও মানুষের নেতা। তাই জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে দেশ ও মানুষের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

তিনি বলেন, মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে একটি রাজনৈতিক দলের নেতার কণ্ঠ রোধ করার অপচেষ্টা নজিরবিহীন। দেশের মানুষ জিএম কাদেরের কথা শুনতে চায়, দেশের মানুষ তার নেতৃত্ব গ্রহণ করেছে। এতে হতাশ হয়ে দল থেকে বহিষ্কৃত এবং অর্বাচীন কিছু মানুষ জিএম কাদের ও জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে।

সোমবার রাজধানীর বিজয়নগর প্রধান সড়কে পার্টি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতির বক্তৃতায় সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এ কথা বলেন। 

সমাবেশে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা ও জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির ভাপতি শেরীফা কাদের এমপি বলেন, জাতীয় পার্টি হচ্ছে সুশৃঙ্খল ও আদর্শবাদী রাজনৈতিক শক্তি। জাতীয় পার্টির শৃঙ্খলা কখনোই দুর্বলতা নয়। 

তিনি বলেন, হাজার হাজার মানুষের এই মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ প্রমাণ করে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী রাজনৈতিক দল। শেরীফা কাদের এ সময় জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। 

তিনি বলেন, জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নেই, জাতীয় পার্টি জিএম কাদেরের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছে। কোনো ষড়যন্ত্রই জাতীয় পার্টির ঐক্যে ফাটল ধরাতে পারবে না। 

পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও অতিরিক্ত মহাসচিব সাহিদুর রহমান টেপা বলেন, রাজনীতিতে হামলা, মামলা ও ষড়যন্ত্র নতুন কিছু নয়। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিরুদ্ধে যে অপশক্তি ষড়যন্ত্র করেছে তারা এখন আবার সক্রিয় হয়েছে। বক্তব্য রাখেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম আব্দুল মান্নান, মীর আবদুস সবুর আসুদ, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম সেন্টু, এটিইউ তাজ রহমান, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, এমরান হোসেন মিয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, জহিরুল ইসলাম জহির, জহিরুল আলম রুবেল, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা হেনা খান প্রমুখ।

যশোরে প্রতিবাদ: যশোর ব্যুরো জানায়, জিএম কাদেরের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকালে দলীয় কার্যালয়ে জেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্যে যশোর জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, আমাদের দলের মধ্যে দুই একজন শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে বহিষ্কার হন। সেই বহিষ্কৃৃতরা পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের এমপির নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে সারা দেশের জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের হৃদয়ে আঘাত করেছে। অবিলম্বে এ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি। অন্যথায় সারা দেশের মতো যশোর জেলা জাতীয় পার্টি রাজপথে নামতে বাধ্য হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব মুফতি ফিরোজ শাহ্, যুগ্ম আহ্বায়ক মিনহাজুল আরেফিন ও নজরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির নেতা অ্যাডভোকেট আবু মুছা, আক্কাস আলী, মনিরুজ্জামান হিরণ, শফিয়ার রহমান, শফিকুল ইসলাম শফিক প্রমুখ। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন