এক ধাওয়াতেই বিএনপি পুলিশের হাত-পা ধরা শুরু করেছে: হানিফ
jugantor
এক ধাওয়াতেই বিএনপি পুলিশের হাত-পা ধরা শুরু করেছে: হানিফ

  কুমিল্লা ব্যুরো  

০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২১:৪৪:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ করে বলেছেন, শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর মতো সামনে কিছু লোক দেখে জোশে হুঁশ হারিয়ে বেহুঁশ হইয়েন না। শেষে উপায় পাবেন না। শিশু বক্তাকে পুলিশ ধরার পর পুলিশের পায়ে ধরে বলে- স্যার জোশে ভুল করে ফেলেছি। আপনারাও সামনে কিছু লোক দেখে জোশে হুঁশ হারিয়েছিলেন, এক দাবারেই পুলিশের হাত-পা ধরা শুরু হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, বিএনপি বলেছিল ১০ তারিখের পর নাকি দণ্ডিত খালেদা জিয়ার আদেশে দেশ চলবে। তাদের আরেক দণ্ডিত নায়ক তারেক রহমান। যে মুচলেকা দিয়ে রাজনীতি করবে না বলে পালিয়ে গিয়েছিল তিনি নাকি বীরের বেশে দেশে ফিরবেন। মুচলেকা দিয়ে পালানো নেতা কী করে বীর হয়?

হানিফ বলেন, আমি বিএনপিকে হুঁশিয়ার করে বলে দিতে চাই, সন্ত্রাসী কাণ্ড করবেন না। সন্ত্রাসী কাণ্ড করলে আমরা কতটা কঠোর হতে পারি সেটা টের পাবেন।

পল্টনে বিএনপি পুলিশের ওপর হামলা করেছিল উল্লেখ করে হানিফ বলেন, তারা সারা দেশে সভা সমাবেশ করেছে, আমরা বাধা দেইনি। পল্টনে অবৈধভাবে সড়ক দখল করে জনভোগান্তি সৃষ্টি করে বস্তাভর্তি বোম নিয়ে অবস্থান নিতে চেয়েছিল। পুলিশ অবস্থান ছাড়তে বললে তারা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে পুলিশ সদস্যদের আহত করে।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর প্রমুখ।

এক ধাওয়াতেই বিএনপি পুলিশের হাত-পা ধরা শুরু করেছে: হানিফ

 কুমিল্লা ব্যুরো 
০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ করে বলেছেন, শিশু বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর মতো সামনে কিছু লোক দেখে জোশে হুঁশ হারিয়ে বেহুঁশ হইয়েন না। শেষে উপায় পাবেন না। শিশু বক্তাকে পুলিশ ধরার পর পুলিশের পায়ে ধরে বলে- স্যার জোশে ভুল করে ফেলেছি। আপনারাও সামনে কিছু লোক দেখে জোশে হুঁশ হারিয়েছিলেন, এক দাবারেই পুলিশের হাত-পা ধরা শুরু হয়ে গেছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, বিএনপি বলেছিল ১০ তারিখের পর নাকি দণ্ডিত খালেদা জিয়ার আদেশে দেশ চলবে। তাদের আরেক দণ্ডিত নায়ক তারেক রহমান। যে মুচলেকা দিয়ে রাজনীতি করবে না বলে পালিয়ে গিয়েছিল তিনি নাকি বীরের বেশে দেশে ফিরবেন। মুচলেকা দিয়ে পালানো নেতা কী করে বীর হয়? 

হানিফ বলেন, আমি বিএনপিকে হুঁশিয়ার করে বলে দিতে চাই, সন্ত্রাসী কাণ্ড করবেন না। সন্ত্রাসী কাণ্ড করলে আমরা কতটা কঠোর হতে পারি সেটা টের পাবেন।

পল্টনে বিএনপি পুলিশের ওপর হামলা করেছিল উল্লেখ করে হানিফ বলেন, তারা সারা দেশে সভা সমাবেশ করেছে, আমরা বাধা দেইনি। পল্টনে অবৈধভাবে সড়ক দখল করে জনভোগান্তি সৃষ্টি করে বস্তাভর্তি বোম নিয়ে অবস্থান নিতে চেয়েছিল। পুলিশ অবস্থান ছাড়তে বললে তারা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে পুলিশ সদস্যদের আহত করে।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আওয়ামী লীগের চট্টগ্রাম বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন