বিএনপির নালিশ গাজীপুরের মানুষ গ্রহণ করেনি : ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ : ২৭ জুন ২০১৮, ১৫:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নিয়ে বিএনপি যে নালিশ করেছে গাজীপুরের মানুষ তা গ্রহণ করেনি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার সকালে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন-পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান করে নির্বাচন বাতিল চেয়ে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপির ফল প্রত্যাখ্যানের জবাবে দলটিকে বিদেশিদের কাছে নালিশ করার পরামর্শ দেন সেতুমন্ত্রী।   

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের বলেন, নালিশ করতে বলুন বিদেশিদের কাছে। তাদের নালিশ গাজীপুরের লোক গ্রহণ করেনি। বাংলাদেশের জনগণ গ্রহণ করেনি।

তিনি বলেন, এখন গাজীপুর নিয়ে একটা আন্দোলন করুক না বিএনপি। দেখুক জনগণ সাড়া দেয় কিনা? দেবে না। 

সেতুমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের মানুষ গাজীপুরের নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও প্রমাণ করেছে- নেতিবাচক রাজনীতির দিনশেষ, সাম্প্রদায়িক রাজনীতির দিন শেষ; বোমাবাজি-লুটপাটের রাজনীতির দিনশেষ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিএনপি তাদের সেই পুরনো কৌশল— জিতলে আছি, হারলে নাই নীতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। 

তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব ও অন্য নেতারা জনগণের রায়কে গ্রহণ না করে নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য উপস্থাপন করছেন। 

মন্ত্রী জানান, তিনি শুনেছেন- বিএনপি আদালতকে বলেছে, গণশুনানি করার জন্য।

সেতুমন্ত্রী বলেন, অচিরেই তারা বিদেশিদের কাছে ধরণা দেবে নালিশ করার জন্য। জনগণের কাছে সাড়া না পেয়ে বিএনপি বিদেশিদের দ্বারস্থ হবে। জনগণের প্রতি তাদের কোনো আস্থা নেই। গাজীপুরের রায়কে প্রত্যাখ্যান করে বিএনপি জনগণের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করেছে।

বিএনপি নৌকার ব্যাজ লাগিয়ে ভোট-সন্ত্রাস করেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, তারা বরাবরের মতো পরিকল্পিতভাবে অরাজকতা সৃষ্টি করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার ষড়যন্ত্র করেছিল। কিন্তু তা জাতির সামনে প্রকাশ পাওয়ার পরও তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। তিনি প্রশ্ন রাখেন- এত কিছুর পরও বিএনপির শুভবুদ্ধির উদয় হবে কিনা?

গাজীপুর সিটি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়েছে দাবি করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গতকাল অবাধ, সুষ্ঠু, পক্ষপাতহীন ও উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচন হয়েছে। তাতে বেসরকারিভাবে তাদের প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়ী হওয়ায় তিনি গাজীপুরবাসীসহ নির্বাচন-সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ দেন।

 এ ছাড়া সাফল্যের সঙ্গে নির্বাচন পরিচালনার জন্য নির্বাচন কমিশনকেও ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, এবার ইভিএম পদ্ধতিতে গাজীপুরের ছয়টি কেন্দ্রে নির্বাচন হয়েছে। সব কটিতেই আওয়ামী লীগের প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থী এ ছয়টি কেন্দ্রে পেয়েছেন ৪ হাজার ৮১০ ভোট। বিএনপি প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার পেয়েছেন ২ হাজার ২৯৭ ভোট।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনে প্রতিযোগিতা ও নির্বিঘ্ন পরিবেশ ছিল। প্রার্থীদের মধ্যে সম্প্রীতি ছিল। আওয়ামী লীগ নির্বাচনে ভালো প্রার্থী নির্বাচন করেছে। খুলনা ও গাজীপুরের মতো বাকি নির্বাচনেও তাদের এ বিজয় অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রাজ্জাক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।