রুমিনের গার্ডিয়ানরা আদব শিক্ষা দেয় নাই: নিক্সন চৌধুরী
jugantor
রুমিনের গার্ডিয়ানরা আদব শিক্ষা দেয় নাই: নিক্সন চৌধুরী

  বাগেরহাট প্রতিনিধি  

২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ২২:৫৮:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কিছু অযোগ্য নেতৃত্ব কিছু অসভ্য নেত্রী তৈরি করেছেন; যারা বেফাঁস কথাবার্তা বলেন বলে মন্তব্য করেছেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী এমপি। তিনি বলেন, সংসদে টেবিল বাড়ি দিয়ে রুমিন ফারহানা বলেন খেলা হবে, আসেন খেলা হবে। তার বক্তব্য শুনে আমি মনে করি উনাদের গার্ডিয়ানরা শিক্ষা দেয় নাই, আদব দেয় নাই। বেয়াদব তৈরি করেছে। কারণ আমরা আমাদের মুরব্বিদের সামনে এমন কথা বলতে পারি না।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বিকাল ৩টায় বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে জেলা যুবলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে নিক্সন চৌধুরী এমপি এসব কথা বলেন।

বাগেরহাটে দীর্ঘ ১৬ বছর পর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনটি উদ্বোধন করেন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। তিনি বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের সজাগ থাকবে হবে। অনুপ্রবেশ কারীরা আমাদের মধ্যে বন্ধুবেশে শত্রু, তাদের যুবলীগের প্রতি কোনো মায়া নেই, দায়বদ্ধতা নেই। তারা এসেছে বিগত দিনের অপকর্ম ঢাকতে, তাদের স্বার্থ হাসিল করতে।

বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহবায়ক সরদার নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে সম্মেলন প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন। সম্মেলনের উদ্বোধন করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বন পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল, আমিরুল আলম মিলন এমপি, শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল এমপি, বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময়।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল। আরও বক্তব্য রাখেন- বাগেরহাটের সাবেক এমপি মীর শওকত আলী বাদশা, বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সোহেল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সুব্রত পাল, শামীম আল সাইফুল সোহাগ, তৌফিকুর রহমান সুজন, আশিকুর রহমান শান্ত, শেখ নবীরুজ্জামান বাবু, রাজু আহম্মেদ ভিপি মিরন, বাগেরহাট জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. শাহনেওয়াজ মোল্লা দোলন, ফারুক তালুকদার প্রমুখ।

রুমিনের গার্ডিয়ানরা আদব শিক্ষা দেয় নাই: নিক্সন চৌধুরী

 বাগেরহাট প্রতিনিধি 
২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিছু অযোগ্য নেতৃত্ব কিছু অসভ্য নেত্রী তৈরি করেছেন; যারা বেফাঁস কথাবার্তা বলেন বলে মন্তব্য করেছেন যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মজিবুর রহমান নিক্সন চৌধুরী এমপি। তিনি বলেন, সংসদে টেবিল বাড়ি দিয়ে রুমিন ফারহানা বলেন খেলা হবে, আসেন খেলা হবে। তার বক্তব্য শুনে আমি মনে করি উনাদের গার্ডিয়ানরা  শিক্ষা দেয় নাই, আদব দেয় নাই। বেয়াদব তৈরি করেছে। কারণ আমরা আমাদের মুরব্বিদের সামনে এমন কথা বলতে পারি না।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) বিকাল ৩টায় বাগেরহাট শেখ হেলাল উদ্দিন স্টেডিয়ামে জেলা যুবলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে নিক্সন চৌধুরী এমপি এসব কথা বলেন।

বাগেরহাটে দীর্ঘ ১৬ বছর পর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনটি উদ্বোধন করেন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। তিনি বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের সজাগ থাকবে হবে। অনুপ্রবেশ কারীরা আমাদের মধ্যে বন্ধুবেশে শত্রু, তাদের যুবলীগের প্রতি কোনো মায়া নেই, দায়বদ্ধতা নেই। তারা এসেছে বিগত দিনের অপকর্ম ঢাকতে, তাদের স্বার্থ হাসিল করতে।

বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহবায়ক সরদার নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে সম্মেলন প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন। সম্মেলনের উদ্বোধন করেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বন পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির  সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল, আমিরুল আলম মিলন এমপি, শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল এমপি, বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময়।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল। আরও বক্তব্য রাখেন- বাগেরহাটের  সাবেক এমপি মীর শওকত আলী বাদশা, বঙ্গবন্ধুর ভ্রাতুষ্পুত্র  যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সোহেল উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সুব্রত পাল, শামীম আল সাইফুল  সোহাগ, তৌফিকুর রহমান সুজন, আশিকুর রহমান শান্ত, শেখ  নবীরুজ্জামান বাবু, রাজু আহম্মেদ ভিপি মিরন, বাগেরহাট জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. শাহনেওয়াজ মোল্লা দোলন, ফারুক তালুকদার প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন