যোগ হচ্ছে নতুন ২ মোর্চা

শীতের মধ্যেই শিক্ষক সংগঠনগুলোর অনশন অবস্থান

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৩ জানুয়ারি ২০১৮, ২২:৪২ | অনলাইন সংস্করণ

শিক্ষক আন্দোলন
ফাইল ছবি

চলমান শিক্ষক আন্দোলন আজ থেকে নতুন মাত্রা পাচ্ছে। শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষকদের দুটি মোর্চা রোববার মাঠে নামছে। একই দাবিতে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি নিয়ে আগে থেকে মাঠে আছে শিক্ষকদের আরেক মোর্চা। এছাড়া মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবিতে আমরণ অনশনে আছেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা। এসব সংগঠনই সরকারপন্থী হিসেবে পরিচিত।

তীব্র শীত উপেক্ষা করে ইবতেদায়ি শিক্ষকরা আজ ছয় দিন ধরে প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশন করছেন। এসব শিক্ষকের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশই নারী। ওইসব মায়ের অনেকের সঙ্গে শিশুও আছে। রাস্তার ওপর ও ফুটপাতে অবস্থান হয়েছে ওই নারী-শিশুর। শীত, ধুলোবালি, গাড়ির হর্নের বিকট শব্দ আর কালো ধোঁয়ার মধ্যেই কাটছে তাদের অনাহারী জীবন। অনশনে শনিবার পর্যন্ত ১৪৫ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন কর্মসূচি ডাকা সংগঠন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির মহাসচিব কাজী মোখলেসুর রহমান। তিনি যুগান্তরকে বলেন, যত কষ্টই হোক তারা অনশন চালিয়ে যাবেন। প্রয়োজনে রাস্তায় মরবেন, তবু দাবি আদায় না করে ঘরে ফিরবেন না। এক প্রশ্নের জবাবে এ শিক্ষক নেতা বলেন, ‘নারী-শিশুদের তো আমরা কষ্ট দিচ্ছি না। কষ্ট দিচ্ছে সরকার। আমরা আমাদের অধিকার আদায়ে আন্দোলনে আছি। একই আইন বলে প্রতিষ্ঠিত প্রাথমিক স্কুল সরকার জাতীয়করণ করে নিল। আর আমাদের করল না।’ ১ জানুয়ারি থেকে এসব শিক্ষক রাজপথে আছেন। ৮ জানুয়ারি থেকে তারা আমরণ অনশনে আছেন।

লাগাতার অবস্থান : ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে ডিগ্রি স্তর পর্যন্ত শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে বুধবার থেকে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বেসরকারি স্কুল,-কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষকরা। প্রেসক্লাবে প্রবেশের প্রধান ফটকের পূর্ব দিকে রাস্তার ওপরই তারা শুয়ে-বসে পালন করছেন কর্মসূচি। শিক্ষক নেতারা জানাচ্ছেন, কাল থেকে শুরু হবে আমরণ অনশন।

বেসরকারি স্কুল- কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের আমরণ অনশনে নেতৃত্ব দিচ্ছে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরাম। ফোরামের অধীনে বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী ফোরাম, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল), বাংলাদেশ শিক্ষক ইউনিয়ন, জাতীয় শিক্ষক পরিষদ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (শাহ আলম-জসিম) সদস্যরা যোগ দিয়েছেন।

শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ দাবি : সরকারপন্থী দুটি শিক্ষক মোর্চা শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণসহ বিভিন্ন দাবিতে আজ থেকে আন্দোলনে নামছেন। এর মধ্যে স্বাধীনতা শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন রোববার থেকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গণসংযোগ করবে। এ ছাড়া এ মোর্চার আরও কিছু কর্মসূচি আছে। এর মধ্যে আছে ২১ জানুয়ারি সারা দেশে উপজেলায় মানববন্ধন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি প্রদান। ২৫ জানুয়ারি জেলায় মানববন্ধন ও ডিসিদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি। ২৭ জানুয়ারি জাতীয় প্রেসক্লাবে গোলটেবিল বৈঠক। পরে ৩ মার্চ ঢাকায় প্রতিনিধি সম্মেলন করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

১১ জানুয়ারি এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল। ফেডারেশনের প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু বলেন, শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ এখন সময়ের দাবি। এ দাবি পূরণে সরকারের বাড়তি কোনো খরচ হবে না।

৯টি শিক্ষক-কর্মচারী সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত যৌথ মোর্চা শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রাম কমিটি শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবিতে রোববার সব জেলায় ও কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায় মানববন্ধন, মিছিল ও প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেবে।

কমিটির সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ আসাদুল হক বলেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচি ঢাকা মহানগরীর শিক্ষক-কর্মচারীদের সমন্বয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে শুরু হবে। সেখানে মানববন্ধন শেষে মিছিল করে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.