জনগণের ভোট অন্য কেউ দিচ্ছেন অভিযোগ আরিফুলের

প্রকাশ : ৩০ জুলাই ২০১৮, ০৯:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

  সিলেট

ছবি- যুগান্তর

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, জনগণ ভোট দিলে জনরায় মেনে নেব। তবে জনগণের ভোট অন্য কেউ দিলে সেটি মেনে নেয়া যায় না। ভোট প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ ও অভিযোগ করেছেন তিনি।

সোমবার সকাল ৮টায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী বাড়ির পাশের রায়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যান তার মাকে নিয়ে। এরপর ভোট প্রদান শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ অভিযোগ করেন।

বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী ভোট দেয়ার পর অভিযোগ করেন, ২০নং ওয়ার্ডের এমসি কলেজ ও ১৭নং ওয়ার্ডের কাজি জালাল উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দসহ কয়েকটি কেন্দ্রে রাতে বাক্সে ব্যালট ভরে রাখা হয়েছে। 

এ ছাড়া নির্বাচনে বিজয়ের ব্যাপারে কী বলব, সেটি তো প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় আগেই মার্ক দিয়ে দিয়েছেন তার ফেসবুক পাতায়।
তিনি নির্বাচনের আগের দিন রোববার ফেসবুক পেজে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের এগিয়ে থাকার বিষয়ে পোস্ট দিয়েছেন।

সিলেট সিটি নির্বাচনে ৭ মেয়রপ্রার্থী হলেও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী মো. বদরুজ্জামান সেলিম নির্বাচন থেকে সরে গেছেন। বাকি ৬ মেয়রপ্রার্থী মাঠে রয়েছেন। মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রয়েছেন আওয়ামী লীগের বদরউদ্দিন আহমদ কামরান ও বিএনপির আরিফুল হক চৌধুরী।

এ ছাড়া জামায়াত প্রার্থী এহসানুল মাহবুব জুবায়ের প্রথমবার প্রার্থী হয়ে আলোচনায় আছেন। এ সিটিতে সর্বোচ্চ ৩ লাখ ২১ হাজার ৭৩২ ভোটার। এর মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৭১ হাজার ৪৪৪ ও নারী ভোটার এক লাখ ৫০ হাজার ২৮৮ জন। 

২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত সিলেট সিটিতে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১২৭ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।