নিহত মীমের পরিবারের পাশে থাকবেন এরশাদ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ আগস্ট ২০১৮, ১৩:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ
ছবি: যুগান্তর

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় নিহত শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী দিয়া খানম মীমের বাসায় গিয়ে তার বাবা-মাকে সান্ত্বনা দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এ সময়ে নিহত মীমের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি মহাখালীতে মীমের বাসায় গেলে তার বাবা-মা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

মীমের মায়ের মাথায় হাত বুলিয়ে সমবেদনা জানিয়ে তিনি বলেন, মা, তোমার সন্তানের মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে দুঃখিত, আমরা শোকাহত। এই শোক প্রকাশের ভাষা আমাদের জানা নেই। আমরা দুঃখিত বলতে এসেছি।

পরে মীমের পরিবারের খোঁজখবর নেন সাবেক প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

এরশাদের কাছে মীমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম তার আরেক মেয়ে রুকাইয়া খানমের জন্য একটি সরকারি চাকরির ব্যবস্থা করার অনুরোধ জানান। পল্লীবন্ধু এরশাদ তাকে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

জাহাঙ্গীর আলম গাড়ি চালিয়ে তিন ছেলেমেয়ের পড়াশোনার খরচ চালান। মহাখালীর একটি বাসায় মাসে ১০ হাজার টাকা ভাড়া দিয়ে থাকেন তিনি। পরিবারটিকে দেখিয়ে সাংবাদিকদের এরশাদ বলেন, তোমরা দেখ- দারিদ্র্য কাকে বলে।

সাবেক এ প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা নিরাপদ সড়ক চাই। দেশের অধিকাংশ গাড়ির ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই।

এ সময় আরও ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমীন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি, সৈযদ আবু হোসেন বাবলা এমপি ও এসএম ফয়সল চিশতী।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.