হামলায় ফখরুলরা জড়িত: ওবায়দুল কাদের

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৫ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

হামলায় ফখরুলরা জড়িত: ওবায়দুল কাদের
ফাইল ছবি

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও তার দল জড়িত বলে অভিযোগ করেছেন ওবায়দুল কাদের

রোববার বিকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

আওয়ামী লীগ সম্পাদক বলেন, আমীর খসরু মাহমুদের ফোনালাপে মির্জা ফখরুলের সমর্থন দেয়ায় বিএনপির ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়ে গেছে। এর ফলে প্রমাণ হলো একটি অরাজনৈতিক আন্দোলনের সঙ্গে বিএনপি জড়িত।

তিনি বলেন, বিএনপি ও তার দলের দোসররা শিক্ষার্থীদের এ অরাজনৈতিক আন্দোলনের ওপর ভর করে সরকার পতনের ষড়যন্ত্র করছে। শনিবার ও রোববারের হামলায় প্রমাণিত যে মির্জা ফখরুল ও তার দল জড়িত।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। প্রধানমন্ত্রী দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্ক ও সংযত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।তিনি (প্রধানমন্ত্রী) পরিষ্কারভাবে অল্প কথায় বলেছেন- ধৈর্য্য ধরতে হবে, অ্যালার্ট থাকতে হবে।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমিও আমাদের নেতাকর্মীদের প্রধানমন্ত্রীর এই আহ্বানে সাড়া দিয়ে সবাইকে ধৈর্য ধরার জন্য এবং পরবর্তী সময়ে যে কোনো প্রকার কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি যদি হতে হয়, সেজন্য সবাইকে সর্তকভাবে অপেক্ষা করার জন্য আবেদন জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমরা আক্রমণকারী হিসেবে চিহ্নিত হতে চাই না। আমরা দেশে শান্তি চাই। আমরা ধৈর্য সহনশীলতার পরাকাষ্ঠা প্রদর্শন করে যাব। নির্দেশনার বাইরে কেউ যেন কোনো প্রকার তাদের প্রভোকেশনের (উসকানি) মধ্যে না পড়ে সে ব্যাপারেও সবাইকে সর্তক থাকার আহ্বান জানান কাদের।

আন্দোলন ঘিরে ষড়যন্ত্রের আশংকা করে সেতুমন্ত্রী বলেন, যদি কোনো প্রকার প্রতিক‚ল পরিস্থিতি আসে সেই পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। কারণ আমরা ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি। এই বিএনপি-জামায়াত পরিকল্পিতভাবে ষড়যন্ত্রের নীল নকশা তৈরি করেছে। আমরা বিশ্বাস করি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকলে এই ঐক্যবদ্ধ শক্তির কাছে কোনো ষড়যন্ত্র কোনো চক্রান্ত সফল হবে না।

কোটা আন্দোলনে সুবিধা করতে না পেরে বিএনপি এখন শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের দাবির আন্দোলনে সওয়ার হয়েছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ অফিসে নাকি সাতজনকে আটকে রেখে আহত করা হয়েছে। গতকালকে (শনিবার) ফেসবুকের ভিডিও পোস্টের প্রতি সমর্থন জানিয়ে, তিনি প্রমাণ করেছেন যে ভিডিও পোস্টের অপপ্রচার সঙ্গে মির্জা ফখরুল ও বিএনপির সংযোগ রয়েছে। আমরা এটাও এখন মনে করছি যে, মেয়েটা বলেছিলো আওয়ামী লীগ অফিসে আমি ধর্ষিত হচ্ছি, আমাকে বাঁচান। আমাদের এখন বিশ্বাস করছি এই ভিডিও পোস্টিংয়ের সঙ্গে বিএনপি জড়িত। আওয়ামী লীগ অফিসে যে হামলা হয়েছিলো তাতেও মির্জা ফখরুল ইসলাম ও তার দলের সংযোগ রয়েছে।

আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা করার জন্য বিএনপি-জামায়াত তাদের ছাত্র সংগঠনকে দিয়ে আক্রমণ সাজিয়েছিল দাবি করে তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আওয়ামী লীগ অফিসে হামলার নির্দেশ দিয়ে আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপাচ্ছেন। আওয়ামী লীগ অফিস, শেখ হাসিনার অফিস। এখানেও হামলা করার দুঃসাহস দেখিয়েছেন।

রাজধানীতে বিভিন্ন স্থানে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছে আন্দোলনকারীদের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, যদি কেউ প্রমাণ দিতে পারে আওয়ামী লীগ আক্রমণকারী তাহলে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। প্রমাণ ছাড়া বিএনপির মতো মিথ্যাচার যারা দিনকে রাত করে রাতকে দিন করে, তাদের মিথ্যাচারের ভাষা ও অপপ্রচার মেনে নেব না। তথ্য প্রমাণ দিতে হবে।

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জানান, দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় দলীয় ফোরামে আলোচনা করে তারা আইনি ব্যবস্থা নেবেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter